মিথ্যা অজুহাত দিয়ে সমর্থকদের চুপ করাতে চাইছে ATK Mohun Bagan ম্যানেজমেন্ট

0
23

স্পোর্টস ডেস্ক: মোহনবাগানের নামের আগে থেকে ATK কে হটাতে বহুদিন ধরেই লড়ে আসছেন মেরিনার্সরা। যদি কর্তৃপক্ষের টনক না নড়ে সেক্ষেত্রে আরও বড় আন্দোলনের হুমকি দিয়ে রেখেছেন সমর্থকদের একাংশ। তাদের কথায়, মোহনবাগানের শুরুতে ATK আসলে একটি Prefix ছাড়া কিছুই নয়। এরই মধ্যে এটিকে মোহনবাগান ম্যানেজমেন্ট নয়া অজুহাত খুঁজে পেয়েছে। সমর্থকদের দাবি, তাদের মাতৃসম মোহনবাগানের উপর ‘এটিকে’ ব্র্যান্ড চাপিয়ে দিচ্ছে ম্যানেজমেন্ট। সেক্ষেত্রে বলছে, “এএফসি ক্লাবের নামে পণ্যের ব্র্যান্ডিংয়ের অনুমতি দেয় না।”

এই অজুহাত দেখে এক মেরিনার্স টুইটারে ম্যানেজমেন্টকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছেন। তিনি স্পষ্ট উদাহরণ দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, বাকি দলগুলিতে সমস্তই পণ্যের ব্র্যান্ডিং হচ্ছে। তিনি লিখেছেন, “মিথ্যা বলার আগে একটু লজ্জা করুন। ACL 2022-এ দলগুলি:
উলসান হুন্ডাই, জিওনবুক হুন্ডাই মোটরস, বিজি পাথুম ইউনাইটেড (বিজি অর্থাৎ ব্যাংকক গ্লাস কোম্পানি)।” সেক্ষত্রে সমর্থকদের ভয়ে যে আরও একবার এটিকে মোহনবাগান মিথ্যা অজুহাত দিচ্ছে তা স্পষ্ট।

আরও পড়ুন: বিসিসিআইয়ের ব্যানের মুখে Boria Majumdar, ব্ল্যাকলিস্ট করতে পারে ICC -ও

এএফসি কাপের মূল পর্বেও পৌঁছে গিয়েছে এটিকে মোহনবাগান। দর্শকদের জন্য খুলে গিয়েছে যুবভারতীর দরজা। মেরিনার্সরা প্রিয় সবুজ মেরুন দলকে সমর্থন করতে মাঠে উপস্থিত হলেও মন মানছে না। সমর্থনের পাশাপাশি তাল মিলিয়ে চলছে প্রতিবাদও। যুবভারতীতে পোস্টার, টিফো, পতাকা, ইত্যাদি নিয়ে প্রবেশ নিষিদ্ধ ছিল। তবুও মেরিনার্সদের একদল টিফো নিয়ে মাঠে ঢোকে। ব্যানারে লেখা রয়েছে, ‘আমরা সমর্থক, আপনার ক্রেতা নই’, ‘আমাদের মোহনবাগান ফিরিয়ে দাও।’ দীর্ঘ দুই বছর ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় জুড়ে মোহনবাগান সমর্থকরা দাবি জানিয়ে এসেছে ‘Remove ATK’। এবার মাঠে সবার সামনে উপস্থিত থেকে তারা প্রতিবাদের ঝড় তুলল।