ফিরে দেখা: মেসির ফেলে আসা চারটি বিশ্বকাপে কেমন অবদান ছিল 

0
17
lionel messi's record in last 4 FIFA world cup

শান্তি রায়চৌধুরী: মেসি এবার নিয়ে মোট পাঁচটি বিশ্বকাপে অংশ নিতে চলেছেন। মেসির বিশ্বকাপ জার্নি শুরু ২০০৬ এ জার্মানিতে। এরপর আরও তিনটি বিশ্বকাপে মেসি অংশ নিয়েছেন কিন্তু জাতীয় দলকে শিরোপা জেতাতে পারেননি।জাতীয় দলের জার্সিতে মেসির শিরোপা উঁচিয়ে ধরার আকাঙ্ক্ষা পূরণ হয় গত বছর জুলাইয়ে কোপা আমেরিকা কাপে ফাইনালে ব্রাজিলকে হারিয়ে। তবে কোপা আমেরিকা কাপ জয় আর বিশ্বকাপ জয় এ দুটোর মধ্যে পার্থক্য অনেক। তবে যাইহোক, জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ট্রফি জয় মেসির স্বপ্নাকে কিছুটা হলেও সার্থক করেছে।

আগামী নভেম্বরে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপে মেসির আর্জেন্টিনার সি-গ্রুপে প্রতিপক্ষ পোল্যান্ড, মেক্সিকো ও সৌদি আরব। গত বছর কোপা আমেরিকা জিতে লিওনেল স্কালোনির দায়িত্বে থাকা আর্জেন্টিনা শুধু তাদের গ্রুপ জয়ের ফেভারিটই নয়, বিশ্বকাপ জেতার ক্ষেত্রেও ফেভারিটদের তকমা পাবে বলে মনে করেন ফুটবল বিশ্লেষকরা। এর মধ্যে দলে তো মেসির মতো তারকা রয়েছেই।

- Advertisement -

২০০৬ সালের জার্মানি বিশ্বকাপে ১৬ জুন আর্জেন্টিনার দ্বিতীয় গ্রুপ পর্বের ম্যাচে সার্বিয়া ও মন্টেনিগ্রো বিপক্ষে অভিষেক হয় মেসির। বিকল্প হিসেবে মাঠে নেমেই গোল পান তিনি। এতে ৬-০ গোলে জিতে যায় আলবিসেলেস্তেরা। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে পরের ম্যাচেই মেসিরা গোলশূন্য ভাবে খেলা শেষ করে। রাউন্ড সিক্সটিনে মেসিরা মেক্সিকোর মুখোমুখি হন, যেখানে ম্যাচের ৮৪তম মিনিটে বদলি হিসেবে নামেন মেসি। লাতিন আমেরিকান জায়ান্টরা অতিরিক্ত সময়ে ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতে কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেয়।
যদিও শেষ পর্যন্ত মেসিরা টাইব্রেকারে কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে যায় জার্মানির কাছে, এবং বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় আর্জেন্টিনা। তবে আর্জেন্টিনার সেই ম্যাচে ছিলেন না মেসি।
এবার মোট তিনটি ম্যাচ খেলে একটি গোল করেন মেসি।

এরপর ২০১০ সালের দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপেও আর্জেন্টিনা আবার কোয়ার্টার ফাইনালে জার্মানির কাছে ৪-০ গোলে হেরে বিধ্বস্ত হয়। এবারের বিশ্বকাপে মেসির বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি পাঁচটি ম্যাচ খেলেও গোল মুখ খুলতে পারেননি। মেসির ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপ। এবারেই মেশি বিশ্বকাপ জেতার সম্ভাবনা জাগিয়ে তুলেছিলেন। কিন্তু সেই জার্মানির কাছেই তাদের হারতে হয় ফাইনালে। জার্মানির কাছে হেরে গেলেও গোল্ডেন বল পুরস্কার জিতেছেন প্রাক্তন বার্সেলোনা তারকা। এই আসরে মেসির অবদান সাত ম্যাচে চার গোল, এবং প্রায় এককভাবে আলবিসেলেস্তেদের ফাইনালে নিয়ে যান।

২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপও স্মরণীয় নয় মেসির জন্য। তিনি চার ম্যাচে মাত্র একটি গোল করতে সক্ষম হন। শেষ পর্যন্ত ওই আসরে চূড়ান্ত চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের কাছে ৪-২ গোলে হেরে রাউন্ড অফ সিক্সিন থেকে বিদায় নেয় আর্জেন্টিনা। আইসল্যান্ডের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের টাইতেও পেনাল্টি মিস করেছিলেন মেসি। এই বিশ্বকাপে মেসি পুরোপুরি ব্যর্থ। ৪ ম্যাচে একটি গোল করেন।

এক নজরে বিশ্বকাপে মেসির গোল ও অ্যাসিস্ট কত:

*২০০৬ জার্মানি বিশ্বকাপে ৩ ম্যাচ খেলে একটি গোল ও একটি অ্যাসিস্ট করেন মেসি।

*২০১০ দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে ৫ ম্যাচে খেলে গোলশূন্য থাকলেও অ্যাসিস্ট করেন একটি।

*২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ গোল করেছিলেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। ব্রাজিল বিশ্বকাপে ৭ ম্যাচে ৪ গোলের পাশাপাশি একটি অ্যাসিস্ট করেছিলেন।

*আর সবশেষ ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে ৪ ম্যাচে একটি গোল ও দুইটি অ্যাসিস্ট করেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।