“ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ায় চলছে নোংরা রাজনীতি”, বিস্ফোরক Justin Langer

0
39
Justin Langer broke his silence, said - 'dirty politics going on in cricket Australia'

স্পোর্টস ডেস্ক: জাস্টিন ল্যাঙ্গার অস্ট্রেলিয়ার হেড কোচ থাকাকালীন দল অনেক সাফল্য পেয়ছে। এরপরই বিতর্ক হওয়ায় হেড কোচের পদ ছাড়তে হয় তাকে। এবার গোটা বিষয়টি নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন ল্যাঙ্গার। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার রাজনীতি ফাঁস করেছেন ল্যাঙ্গার (Justin Langer)। বিশেষ করে অন্তর্বর্তী প্রধান রিচার্ড ফ্রয়েডেনস্টাইনের প্রতি তীব্র কটাক্ষ করেছেন। ফেব্রুয়ারিতে ল্যাঙ্গার তার চুক্তিতে ছয় মাসের বর্ধিতকরণ গ্রহণ করতে অস্বীকার করার পরে হেড কোচ হিসেবে পদত্যাগ করেন।

টি -২০ বিশ্বকাপ জয়, অ্যাশেজ সিরিজ জয়ের পর ল্যাঙ্গার (Justin Langer) তার চুক্তি দীর্ঘ সময়ের জন্য বাড়ানোর আশা করা করেছিলেন। মার্ক ওয়, অ্যাডাম গিলক্রিস্ট, রিকি পন্টিং, স্টিভ ওয়, ম্যাথু হেডেন এবং প্রয়াত শেন ওয়ার্ন সহ বেশ কয়েকজন অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি ল্যাঙ্গারের সঙ্গে এই আচরণের তীব্র নিন্দা জানিয়েছিলেন। এই বিষয়ে ল্যাঙ্গার বলেন, “প্রথমে তিনি (রিচার্ড) আমাকে বলেছিলেন যে মিডিয়ার সামনে আপনার সাপোর্ট স্টাফরা আপনাকে সমর্থন করছে জেনে আপনি নিশ্চয়ই পছন্দ করেছেন।”

- Advertisement -

আরও পড়ুন: আইপিএল ফাইনালের আগেই বাংলার হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন ঋদ্ধি

তিনি আরও বলেন, “আমি একেবারেই বলেছি তারা সবাই অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের সেরা খেলোয়াড় এবং সারা বিশ্বে কাজ করে। আমার ১২ বছরের কোচিং কেরিয়ারে আমি গত ছয় মাস সবচেয়ে বেশি উপভোগ করেছি। আমরা শুধু জিতেছি তা নয়, আমার শক্তি ছিল, ফোকাস ছিল এবং আমি খুশি, নোংরা রাজনীতি সত্ত্বেও।” তিনি আরও স্পষ্ট করেছেন যে ক্রিস সিলভারউডের বিদায়ের পর ইংল্যান্ডের কোচ হওয়ার বিষয়ে তিনি কারও সঙ্গে কথা বলেননি। “ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক অ্যান্ড্রু স্ট্রস আমার পদত্যাগের একদিন পর আমাকে ফোন করেছিলেন। আমি তাকে অনেক দিন ধরে চিনি। তিনি ছাড়া ইংলিশ ক্রিকেটে কারও সঙ্গে কথা হয়নি”, যোগ করেছেন ল্যাঙ্গার।