সাংসদ হওয়ার পরও আইপিএলে কেন গম্ভীর, উঠছে প্রশ্ন

0
85

স্পোর্টস ডেস্ক: ভারতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সফল ওপেনার গৌতম গম্ভীর ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর রাজনীতিতে যোগ দিয়েছেন। বর্তমানে তিনি বিজেপি সাংসদ। তা সত্ত্বেও ক্রিকেটের প্রতি তার ভালোবাসা কমেনি এবং তিনি একজন মেন্টর হিসেবে ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। আইপিএলে ধারাভাষ্যকার বা ফ্র্যাঞ্চাইজির মেন্টর হিসেবে কাজ করতে দেখা গিয়েছে। একজন কার্যকরী সাংসদ হওয়া সত্ত্বেও গম্ভীরকে তার আইপিএল এবং ধারাভাষ্য সম্পর্কে প্রশ্ন করা হল তখন তিনি উপযুক্ত উত্তর দিলেন।

গৌতম গম্ভীর পূর্ব দিল্লি কেন্দ্র থেকে বিজেপির সাংসদ। একজন রাজনীতিবিদ হিসাবে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার গান্ধী নগরে ‘জন রসোই’ নামে একটি রান্নাঘর খুলেছেন, যেখানে মানুষকে এক টাকায় খাবার সরবরাহ করে। তিনি এলাকায় একটি গ্রন্থাগারও নির্মাণ করেছেন। বিজেপির ৮ বছর ক্ষমতায় আসার পর একটি মিডিয়া কনফারেন্স চলাকালীন ম্ভীরকে আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি এবং ধারাভাষ্য ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: পরকীয়ার জের, বিচ্ছেদ পিকে-শাকিরার

ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ হয়ে বলেছেন যে, তিনি দরিদ্রদের জন্য যে কল্যাণমূলক কাজ করছেন তা চালিয়ে যেতে তাকে অনেক কাজ করতে হবে। গৌতম গম্ভীর বলেন, “আমি কেন আইপিএলে ধারাভাষ্য বা কাজ করব কারণ আমি ৫০০০ জনকে খাওয়ানোর জন্য প্রতি মাসে ২৫ লক্ষ টাকা খরচ করি। এটি প্রতি বছর প্রায় ২.৭৫ কোটি টাকা হবে। আমি লাইব্রেরী তৈরিতেও ২৫ লক্ষ টাকা খরচ করেছি। আমি এই সমস্ত টাকা আমার পকেট থেকে ব্যয় করি, এমপিএলডি তহবিল থেকে নয়।”

আরও পড়ুন: ‘সেক্স টেপ’ কেলেঙ্কারিতে আপিল বাতিল করলেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা

তিনি যোগ করেছেন, “এমপিএলএডি তহবিল আমার রান্নাঘর বা অন্য কোনও কাজ চালায় না। এমনকি আমার বাড়িতে এমন একটি গাছও নেই যেখান থেকে আমি টাকা তুলতে পারি। আমি কাজ করি বলেই, আমি কি সেই ৫০০০ জনকে খাওয়াতে পারি বা সেই লাইব্রেরি স্থাপন করতে পারি? আমি এটা বলতে লজ্জিত নই যে আমি আইপিএলে ধারাভাষ্য এবং কাজ করি। আমি যা করি তার চূড়ান্ত লক্ষ্য থাকে।”