মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরেই কাটল East Bengal -র ইনভেস্টর জট, এল নয়া ইনভেস্টর

0
176
East Bengal's ex player also seek CM Mamata BAnerjee's intervention in club issue

স্পোর্টস ডেস্ক: ফের বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরেই কাটল ইস্টবেঙ্গলের ইনভেস্টর জট।ইমামি সংস্থার সঙ্গে চুক্তি হল ইস্টবেঙ্গলের। মুখ্যমন্ত্রী নিজেই এই চুক্তির কথা ঘোষণা করেছেন। নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতেই নয়া পথ চলা শুরু ইস্টবেঙ্গলের। ইনভেস্টর ইমামির সৌজন্যেই আগামী মরশুমে আইএসএলে খেলবে ইস্টবেঙ্গল।

বুধবার নবান্নে উপস্থিত ছিলেন লাল-হলুদের শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার। ইমামি গ্রুপের তরফ থেকে উপস্থিত ছিলেন আদিত্য আগরওয়াল। গত দুই মরশুম ধরে আইএসএলে ইস্টবেঙ্গলের (East Bengal) ইনভেস্টর নিয়ে সমস্যা ছিলই। বিনিয়োগকারী নিয়ে নানান গুঞ্জন চলছিল ময়দানে। ইস্টবেঙ্গলের বিনিয়োগকারী নির্ধারণে সাহায্য করবেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, এমনটাও খবর ছিল। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে কথাবার্তা বলছিলেন মহারাজ।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের আইএসএলের আগে মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরেই শ্রী সিমেন্ট ইনভেস্টর হয়ে এসেছিল লাল-হলুদে। এরপর টানা দুই মরশুমে আইএসএলে ভরাডুবি অবস্থা ছিল ইস্টবেঙ্গলের। জানা গিয়েছিল, ইস্টবেঙ্গলের (East Bengal) নয়া ইনভেস্টর হতে পারে এক বাংলাদেশী সংস্থা। চুক্তি পাকা করতে পদ্মাপারে পাড়িও দিয়েছিলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। কিন্তু শেষমেশ তা হয়নি। আরও একবার মমতা ইস্টবেঙ্গলের ভরসা হয়ে উঠলেন। ইমামির সঙ্গে চুক্তিতে খুশি লাল-হলুদ সমর্থকরা। এবার শীঘ্রই শুরু হয়ে যাবে দলগঠনের কাজ।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আজ দু’পক্ষই আমার এখানে চা খেতে এসেছিল। দু’পক্ষই রাজি হয়েছে। ইস্টবেঙ্গলের আইএসএলে (ISL) খেলার যে সমস্যা হচ্ছিল, সেই সমস্যা মিটে যাবে।” দেবব্রত সরকার এই চুক্তির জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। “মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়ে ছোট করব না। শুধু ইনভেস্টর নয়, যেভাবে ক্লাবের সব কর্মকাণ্ডের সঙ্গে তিনি যুক্ত থাকেন, সেটা বাংলার আর কোনও মুখ্যমন্ত্রী ভাবেনি। আমি ইমামি গ্রুপকেও (Emami Group) ধন্যবাদ জানাব। আশা করি আগামী দিনে আমাদের ক্লাব ইমামির সাহায্যে সাফল্য পাবে।”