29 C
Kolkata
Wednesday, July 28, 2021
Home খাস ময়দান বিক্ষোভ, লাঠিচার্জ, দুই গোষ্ঠীর লড়াইয়েও আসল সমস্যা মিটল না

বিক্ষোভ, লাঠিচার্জ, দুই গোষ্ঠীর লড়াইয়েও আসল সমস্যা মিটল না

কলকাতা: লক্ষ্য ছিল প্রিয় ক্লাব ইস্টবেঙ্গলকে বাঁচানো এবং দাবি ছিল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব যেন মাঠে নেমে ফুটবল খেলে। নিজেদের মাতৃসম ক্লাবকে বাঁচানোর উদ্দেশ্যেই বুধবার ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের একদল ক্লাবকর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছিল। বিক্ষোভ হবে জেনেই আগে থেকেই ক্লাব চত্বর সহ লেসলি ক্লডিয়াস সরণীতে মোতায়েন ছিল বিশাল পুলিশ বাহিনী। তবে ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের এই বিক্ষোভ যেন কাজে আসল না।

- Advertisement -

লড়াই হল দুই গোষ্ঠীর, হাতাহাতিও বাধল। ক্লাব তাঁবুর পরিস্থিতি পুলিশ সামলালেও ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের বিক্ষোভ থামেনি। প্রথম থেকেই ইস্টবেঙ্গল ক্লাবকর্তারা শ্রী সিমেন্টের চুক্তিপত্রে সই করতে নারাজ ছিল। অনেক আগে থেকেই প্রতিবাদ-বিক্ষোভের পথে বেছে নিয়েছিল লাল-হলুদ সমর্থকরা। নিতু সরকার ও ক্লাবকর্তাদের বিরুদ্ধে তাদের ক্ষোভ বাড়ছে। সেই বিক্ষোভই এবার বৃহৎ আকার ধারণ করেছে।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সঙ্কটে সাহায্য করতে এগিয়ে এলেন প্রাক্তন ফুটবলার

- Advertisement -

দুপুর ৩ টের বেশ কিছু আগেই ক্লাবের সামনে জড়ো হয়েছিল সমর্থকরা। সেই সঙ্গে হাজির ছিলেন ক্লাবকর্তাদের ঘনিষ্ঠ সমর্থকেরাও। ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের উপরেও ক্লাবকর্তাদের সমর্থকরা ঘেরাও করে। সাংবাদিকদের বাধা দিতে গেলে কিছুটা সংঘর্ষ হয়, আহতও হন কয়েকজন সাংবাদিক। আসন্ন আইএসএল এর মরসুম তো দূর। কলকাতা লিগ বা প্রথম ডিভিশনেও ইস্টবেঙ্গলকে খেলতে দেখা যাবে কিনা সন্দেহ। ইস্টবেঙ্গল ক্লাবকর্তারা স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছে, ইনভেস্টর শ্রী সিমেন্টের চুক্তিপত্রে সই করবে না তারা।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গলকে ‘ফাঁকা’ করছে শ্রী সিমেন্ট, স্পোর্টিং রাইটস ফেরাতে ক্ষতিপূরণের চাপ আসতে পারে

- Advertisement -

করোনা বিধি নিষেধ না মেনেই চলে লাল-হলুদ সমর্থকদের বিক্ষোভ। পুলিশ বাহিনী নিরাপত্তা নিয়ে মোতায়েন ছিল। এরপর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কলকাতা পুলিশের ডিসি (সাউথ) আকাশ মাঘারিয়া বলেন, কার্যত প্রায় আড়াই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে লেসলি ক্লডিয়াস সরণীর মতো গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা আটকে রাখা হয়েছিল। দুই ঘন্টারও বেশি সময় ধরে বিক্ষোভ দেখানোর পর লাঠিচার্জ শুরু করে পুলিশ।

আরও পড়ুন: ভারত বনাম কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ একাদশ: দুর্দান্ত সেঞ্চুরি রাহুলের, প্রথম টেস্টে জায়গা পাকা

গ্রেফতার করা হয় বেশ কয়েকজন সমর্থককে। আহত হওয়ায় অ্যাম্বুলেন্সে করে নিয়ে যাওয়া হয় কয়েকজন সমর্থককে। কিন্তু এত কিছুর পর কি আদৌ সমস্যা মিটল? প্রিয় ক্লাবকে বাঁচানোর চেষ্টায় আহত সমর্থকরাই। পুলিশের চাঠি খেয়ে গ্রেফতার হতে হল তাদের। এই জট ও ইস্টবেঙ্গলের ভবিষ্যত কোনদিকে এগোবে সেটাই এখন দেখার।

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

রাজের হাত ধরেই পর্ণ ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছিলেন, চাঞ্চল্যকর দাবি পুনম পান্ডে ও শার্লিনের

খাস খবর ডেস্ক: পর্ণ ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে রাজ কুন্দ্রার যোগাযোগ নতুন কিছু নয়। বহুদিন ধরেই পর্ণোগ্রাফির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত রাজ। এমনকি, তাঁর তত্ত্বাবধানেই পর্ণোগ্রাফিতে হাতেখড়ি...

এবার থেকে টিকিট কেটেই ওঠা যাবে ট্রেনে, বড়সড় পরিবর্তন স্টাফ স্পেশ্যালে

খাসখবর ডেস্ক: যাত্রীদের জন্য এল এক নতুন সুখবর। বড়োসড়ো পরিবর্তন এলো স্টপ স্পেশালের নিয়মে। এবার থেকে টিকিট কেটে ওঠা যাবে ট্রেনে। অর্থাৎ এবার থেকে...

কপিলের শো থেকে বাদ পড়ায় মনের ব্যথা প্রকাশ ‘কর্মহীন’ সুমনার

মুম্বই: শিশুশিল্পী হিসেবে প্রথম অভিনয় জগতে পা রাখেন অভিনেত্রী সুমনা চক্রবর্তী। তিনি প্রথম স্ক্রিন শেয়ার করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা আমির খানের সঙ্গে। তখন সেই...

এক্সক্লুসিভ: প্রয়াণ দিবসে মহানায়কের নাতবৌ অভিনেত্রী দেবলীনা কুমারের ‘উত্তম-কথা’

পূর্বাশা দাস: তিনি শুধু নায়ক নন, তিনি মহানায়ক। আপামর বাঙালির কাছে উত্তম কুমার মানে আবেগ। মৃত্যুর এক চল্লিশ বছর পরেও সকলের মনের মনিকোঠায় রয়েছেন...

খবর এই মুহূর্তে

নতুন লুকে নতুন চরিত্রে ফিরছেন দিতিপ্রিয়া রায়

অর্পিতা দাস: 'রানী মা' ইমেজ থেকে বেরিয়ে নতুন লুকে নতুন চরিত্রে দর্শকদের সামনে আসতে চলেছেন অভিনেত্রী দিতিপ্রিয়া রায়। তবে বড় পর্দা বা ছোট পর্দায়...

চকোলেটের লোভ দেখিয়ে নাবালিকা ধর্ষণ, পলাতক অভিযুক্ত

ডোমজুড়: বয়স মাত্র সাত বছর, একরত্তি শরীর তার। সেই নাবালিকাও ছাড় পেল না। প্রতিবেশী সালাম শেখ চকোলেটের লোভ দেখিয়ে প্রথমে ঘরে বন্দি করে রাখল৷...

‘মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে’, আদালতে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন শুভেন্দু ঘনিষ্ঠের

কাঁথি: চাকরি দেওয়ার নাম করে প্রতারণা সহ একাধিক অভিযোগ ছিল তাঁর বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই কিছুদিন আগেই কলকাতায় গ্রেফতার করা হয়েছিল শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ...

‘আমার এই হরিনাম যাবে সেদিন সাথে গো’, শেষযাত্রায় হেলেদুলেই শ্মশানঘাটে গেলেন বৃদ্ধা

মালদহ: 'আমার এই হরিনাম যাবে সেদিন সাথে গো, আমি হেলেদুলে যাবো শ্মশানঘাটে', চটুল বাংলা গানে মাতলেন শ্মশানযাত্রীরা। নাহ, ভুল কিছু পড়েননি। শেষযাত্রাও যে এতটা আনন্দের...