চিনকে বড় ধাক্কা Apple এর, লাভবান হতে পারে ভারত

0
74
Apple looking to India, not China, to produce iPhones

খাস ডেস্ক: কোভিড -১৯ এর জন্য চিনে কড়া নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে। এদিকে বিখ্যাত টেক কোম্পানি অ্যাপল ইনকর্পোরেটেড চিনের বাইরে ব্যবসা করার কথা বলেছে। অ্যাপল সংস্থা তাদের বেশ কিছু চুক্তি নির্মাতাকে জানিয়ে দিয়েছে যে, তারা চিনের বাইরে তাদের উৎপাদন বাড়াতে চায়। সংস্থাটি এবার ভারত এবং ভিয়েতনামের মতো দেশে ব্যবসা বাড়াতে পারে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম বড় কোম্পানি অ্যাপল কেন এমন সিদ্ধান্ত নিল? এই বিষয়ে দুটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উঠে আসছে। চলমান রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে চিন পরোক্ষভাবে রাশিয়াকে সাহায্য করছে। এরপর অনেক পশ্চিমী কোম্পানি চিনের ওপর তাদের উৎপাদন নির্ভরতা কমাতে চায়। এছাড়াও চিনে কোভিড -১৯ এর পরিপ্রেক্ষিতে অনেক শহরে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে, সেই কারণে এই সংস্থাগুলিও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, অ্যাপলের আইফোন, আইপ্যাড এবং ম্যাকবুক ল্যাপটপের ৯০ শতাংশই চিনে তৈরি। এপ্রিল মাসে অ্যাপলের সাপ্লাই চেইনের সঙ্গে যুক্ত চ্যালেঞ্জের বিষয়ে মন্তব্য করে কোম্পানির প্রধান সিইও টিম কুক বলেন, “আমাদের সাপ্লাই চেইন সত্যিই বিশ্বব্যাপী, সেই কারণেই আমাদের পণ্য সর্বত্র তৈরি করা হয়। আমরা ক্রমাগত এটি বাড়ানোর জন্য উপায় খুঁজছি।” চিনে করোনা আবহে সাংহাই ও অন্যান্য শহরে লকডাউন জারি করা হয়েছে। চলমান কোভিড বিধিনিষেধের কারণে Apple Inc-এর মতো একটি বড় কোম্পানি গত দুই বছর ধরে সেখানে তাদের কর্মকর্তা এবং ইঞ্জিনিয়ারদের পাঠাতে পারছে না। ফলে কোম্পানিটি চিনে উৎপাদন সাইট সম্পর্কে সঠিক তথ্য সংগ্রহ করতে অক্ষম।

 

আরও পড়ুন: প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে নেতা রাহুল, অন্য দায়িত্ব রোহিতের ঘাড়ে

চিনের পর এবার আশা নিয়ে ভারতের দিকে তাকিয়ে আছে অ্যাপল। প্রকৃতপক্ষে চিন ও ভারত দুই দেশের জনসংখ্যাই প্রায় সমান। উভয় দেশই অ্যাপলকে কম দামে অফার করে। জানা গিয়েছে, অ্যাপল কোম্পানি ভারতে তাদের উৎপাদন ও ব্যবসা বাড়ানোর জন্য তাদের কিছু সরবরাহকারীর সঙ্গেও আলোচনা করছে। ভারত গত বছর বিশ্বের আইফোনের ৩.১ শতাংশ উৎপাদন করেছিল এবং এই বছর লক্ষ্যমাত্রা ৬-৭ শতাংশ রাখা হয়েছে। বিশেষজ্ঞ এবং সরবরাহকারীদের মতে, চিন-ভিত্তিক কিছু অ্যাসেম্বলার ভারতে তাদের দোকান স্থাপনে সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে। কারণ ভারত ও বেজিংয়ের মধ্যে সম্পর্ক আগে থেকেই খারাপ।