মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন কি, নির্ভর করছে কংগ্রেস সভাপতির উপর 

0
51

সিমলা: হিমাচলে জিতেছে কংগ্রেস কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন সেই মুখ এখনও সামনে আনা হয়নি। সেই মুখ নিয়ে চর্চার মধ্যে এক নতুন বিষয় নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। সেই আলোচনার মূলে রয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে বাকিদের সঙ্গে এগিয়ে রয়েছেন প্রতিভা সিং। তিনি যদি হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী হন তবে দেশের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে মমতার বন্দ্যোপাধ্যের সেই তকমা আর থাকবে না।

কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা মিলেই ঠিক করবেন কে হবেন হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন। তবে ফলপ্রকাশের পর  হিমাচল প্রদেশ কংগ্রেসের ইনচার্জ রাজীব শুক্লা জানিয়েছিলেন হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন তা দলীয় প্রধানই ঠিক করবেন। আকারে ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিয়েছেন কংগ্রেসের নতুন সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গের উপরেই যাবতীয় সিদ্ধান্ত নির্ভর করছে।  অর্থাৎ খাড়গের হাতেই রয়েছে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন কিনা। এই জল্পনা আরও গাঢ় হয়েছে কারণ কংগ্রেস হিমাচলে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ ঘোষণার আগেই  হিমাচলের প্রয়াত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বীরভদ্র সিং-এর স্ত্রী প্রতিভা সিং (pratibha singh) বলেছেন,  “আমি মনে করি আমি মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে রাজ্যের নেতৃত্ব দিতে পারি যেহেতু সনিয়া জি এবং হাইকমান্ড আমাকে নির্বাচনের আগে দলের নেতৃত্ব দেওয়ার দায়িত্ব দিয়েছেন।”

- Advertisement -

তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, “বীরভদ্র সিং এর পরিবারকে পাশে রাখা ঠিক হবে না যখন নির্বাচন বীরভদ্র সিং এর নামে লড়েছেন এবং জিতেছেন। আমরা ৪০ টি আসন জিতেছি শুধুমাত্র কারণ বীরভদ্র সিং-এর সঙ্গে মানুষের একটি শক্তিশালী মানসিক সংযোগ রয়েছে।” প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বীরভদ্র সিং গত বছর মৃত্যু হওয়ার আগে পর্যন্ত হিমাচল প্রদেশে কংগ্রেসের সবচেয়ে দীর্ঘ মেয়াদী নেতা ছিলেন। তবে হিমাচলের কংগ্রেস প্রধান এটাও বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রীর পদে অনেক দাবিদার থাকবে এবং হাইকমান্ডের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত, তবে বীরভদ্রের উত্তরাধিকারকে উপেক্ষা করা যাবে না।” এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখা ভাল, আজ হিমাচলে সরকার গঠন নিয়ে রাজ্যের রাজ্যপালের সঙ্গে দলের শীর্ষ নেতারা সাক্ষাৎ করেছে। রাজ্যপালের হাতে তুলে দিয়েছেন বিধায়কদের তালিকা। কবে সরকার গঠন হয় আর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কে হন তা জানতেই অধীর আগ্রহে রাজনইতিক মহল।