বিফলে শুভেন্দুর চেষ্টা, তৃণমূলেই যোগ দিচ্ছেন অর্জুন সিং

0
83

সুমন বটব্যাল, কলকাতা: বড়সড় অঘটন না ঘটলে আজ রবিবার দুপুর ৩টেয় বাইপাসের ধারে মেট্রোপলিটনে তৃণমূল ভবনে আরও এক দলবদলু নেতার দলবদলের সাক্ষী থাকবে বাংলা৷ তিনি অর্জুন সিং৷ ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ৷ সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে ভাটপাড়ার বাড়ি থেকে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন দাপুটে এই বিজেপি নেতা৷ তবে এখনও রহস্য জিইয়ে রেখে বলছেন, ‘‘শেষের কাউন্টডাউন শুরু হয়েছে। শুরুর ও শেষ আছে৷ একটু অপেক্ষা করুন, সবটা জানতে পারবেন।’’

সূত্রের খবর, তৃণমূলের হাইকম্যান্ডের নির্দেশেই দল বদল নিয়ে বাইরে কোনও মন্তব্য করছেন না অর্জুন৷ দুপুর তিনটেয় তৃণমূলের নয়া অস্থায়ী ভবন থেকেই তিনি দলবদলের বিস্তারিত ব্যাখ্যা সামনে আনবেন৷ দলবদলের অনুষ্ঠানে থাকতে পারেন ফিরহাদ হাকিম, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এবং কুণাল ঘোষ৷ অভিষেক বা নেত্রীর উপস্থিতির অবশ্য কোনও ‘খবর’ নেই৷ অর্জুনের ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি, ‘‘দাদা বিজেপি ছাড়তে চাননি৷ কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের একের পর এক জনবিরোধী সিদ্ধান্ত, বাংলার উন্নয়নে বাধা তৈরির চেষ্টায় অর্জুনদা ব্যাথিত৷ তাই দলবদলের সিদ্ধান্ত৷’’

টেলিফোনের ওপার থেকে অর্জুন অবশ্য ঝেড়ে কাশতে নারাজ৷ রহস্য জিইয়ে রেখে বলেছেন, ‘‘পাটের দাবির মধ্যে তো অন্যায্য কিছু বলিনি৷ সেটা এখনও হল না৷ আমাকে মানুষকে নিয়ে চলতে হয়৷ মানুষের কথা শুনতে হয়৷’’ খানিক থেমে ওপাশ থেকে ভেসে এসেছে, ‘আর কিছু জিজ্ঞেস করবেন না৷ আমার বাকি কথা একটু পরেই কলকাতায় জানতে পারবেন!’’

বস্তুত, শনিবার থেকেই অর্জুনের দলবদলের জল্পনা অ-শনি পর্যায়ে পৌঁছেছিল৷ এমনকি ব্যারাকপুরে তাঁকে স্বাগত জানিয়ে নেত্রী ও অভিষেকের সঙ্গে একই পোস্টারে ছবিও দেখা যায়৷ তারপরও রবিবার সকালে শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেছিলেন, ‘‘দল ত্যাগ করা অর্জুন সিংয়ের ব্যক্তিগত বিষয়৷ সেটা তিনি করতেই পারেন। তবে আমার সঙ্গে ব্যক্তিগত যে কথা হয়েছে তাতে অর্জুন সিং জানিয়েছেন যে তিনি বিজেপি ছাড়ছেন না।’’ সূত্রের খবর, অর্জুনকে দল না বদলানোর জন্য কয়েকদিন আগে শুভেন্দু তাঁর সঙ্গে আলাদা করে কথা বলেছিলেন৷ যার জেরে অর্জুনের বিষয়ে এদিন সকালেও আত্মবিশ্বাসী দেখা গিয়েছিল নন্দীগ্রামের বিধায়ককে৷ তবে সবজল্পনার অবসান ঘটতে চলেছে আর কিছুক্ষণ পরেই৷ অর্জুন নিজেই জানিয়েছেন সেকথা৷

আরও পড়ুন: অর্জুনের মুখে মমতার জয়ধ্বনি, জোরাল হচ্ছে ফুল বদলের সম্ভবনা