31 C
Kolkata
Saturday, July 31, 2021
Home খাস পলিটিক্স দেহ পেলেও মন পাবে না তৃণমূল: শুভেন্দু

দেহ পেলেও মন পাবে না তৃণমূল: শুভেন্দু

ভোটের আগে দেখা গিয়েছিল দলবদলের এক ছবি। ঝাঁকে ঝাঁকে নেতাকর্মীরা তৃণমূল ছেড়ে নাম লেখাচ্ছিলেন বিজেপি শিবিরে। আর ভোটের পরে সেই ছবিটা সম্পূর্ণ উলটো হয়ে গিয়েছে।

খাস খবর ডেস্ক: বিধানসভা ভোটের আগে দেখা গিয়েছিল দলবদলের এক ছবি। ঝাঁকে ঝাঁকে নেতাকর্মীরা তৃণমূল ছেড়ে নাম লেখাচ্ছিলেন বিজেপি শিবিরে। আর ভোটের পরে সেই ছবিটা সম্পূর্ণ উলটো হয়ে গিয়েছে। রাজ্য জুড়ে বিজেপির বহু সংখ্যক কর্মী ঘাস ফুলের পতাকাতলে রাজনৈতিক আশ্রয় খুঁজেছেন।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- কেন বঙ্গ দখলের স্বপ্ন অধরায় রয়ে গেল বিজেপির, জানালেন ব্রাত্য বসু

এই বিষয়ে মুখ খুলেছেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক তথা বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বিধানসভা ভোটের আগে মূলত এই বিজেপি নেতার আহত ধরেই অনেকে ঘাস ফুল ছেড়ে পদ্মে নাম লিখিয়েছিলেন।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- ভুয়ো সিবিআই কাণ্ডে নয়া মোড়, উদ্ধার ল্যাপটপ সহ একাধিক নথি

ভোটের পরে সেই ছবিটে উলটে যাওয়া প্রসঙ্গে শুভেন্দু বলেছেন, “নিচু স্তরের অনেক মানুষ রয়েছেন যাদের ভয় দেখিয়ে তৃণমূলে নেওয়া হচ্ছে। অনেকে আছেন যারা ছয় হাজার টাকা বেতনের অস্থায়ী কাজ করেন পুরসভায়। তাঁদের চাকরি কেড়ে নেওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এই সব ভয় দেখিয়ে বিজেপি কর্মীদের হাতে ঘাস ফুলের পতাকা ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।”

আরও পড়ুন- এনএইচআরসির অভিযোগকে প্রতিষ্ঠিত করলেন জগদ্দলের দুষ্কৃতীরা

- Advertisement -

একই সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেছেন যে এই উপায়ে দল ভাঙিয়ে কোনও লাভ হবে না। তাঁর কথায়, “তৃণমূলে গেলেও সকল কর্মী মনেপ্রাণে যেমন বিজেপি ছিলেন তেমনই থাকবেন। তৃণমূল কর্মীদের দেহ পেলেও মন পাবে না। নির্বাচনের সময়ে তা স্পষ্ট হয়ে যাবে।” এই সকল কথার সঙ্গে শুভেন্দুর ইঙ্গিত পূর্ণ মন্তব্য, “আমাদের সঙ্গেও অনেকে যোগাযোগ করছেন। সময় এলে সব জানা যাবে।”

শুক্রবার হুগলি সাংগঠনিক জেলা বিজেপির পার্টি অফিসে দলীয় কার্যকারীনি বৈঠকে কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। সেখানেই হাজির ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। পরাস্ত হওয়া হুগলি লোকসভার সাতটি বিধানসভা ভোট নিয়ে পর্যালোচনা ও আগামীতে দলের রাজনৈতিক রণকৌশল স্থির করতে অনুষ্ঠিত হয়েছে এই বৈঠক। সেই বোইঠের শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ওই মন্তব্য করেন শুভেন্দু।

মূলত হুগলি সাংগঠনিক জেলার সকল জেলা পদাধিকারী মোর্চা সভাপতি ও মন্ডল সভাপতিদের নিয়ে এই বৈঠক সম্পন্ন হয়। করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে সকল কর্মীদের এই বৈঠকে ডাকা যায় নি। ভার্চুয়াল প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সকল মন্ডল স্তরের কর্মীদের এই বৈঠকে সামিল করা হয়েছিলো। চুঁচুড়ায় হুগলি সাংগঠনিক জেলা পার্টি অফিসে এদিন এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

বাইক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত নিক, প্রিয়াঙ্কা পাড়ি দিলেন আমেরিকায়

মুম্বই: বলি অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং হলিউড পপ তারকা নিক জোনাসের প্রেম পর্বের খবর প্রায়শই পেজ থ্রির শিরোনামে থাকে। কেবলমাত্র বি-টাউনই নয় হলিউডেও বেশ...

এক্সক্লুসিভ: প্রয়াণ দিবসে মহানায়কের নাতবৌ অভিনেত্রী দেবলীনা কুমারের ‘উত্তম-কথা’

পূর্বাশা দাস: তিনি শুধু নায়ক নন, তিনি মহানায়ক। আপামর বাঙালির কাছে উত্তম কুমার মানে আবেগ। মৃত্যুর এক চল্লিশ বছর পরেও সকলের মনের মনিকোঠায় রয়েছেন...

কপিলের শো থেকে বাদ পড়ায় মনের ব্যথা প্রকাশ ‘কর্মহীন’ সুমনার

মুম্বই: শিশুশিল্পী হিসেবে প্রথম অভিনয় জগতে পা রাখেন অভিনেত্রী সুমনা চক্রবর্তী। তিনি প্রথম স্ক্রিন শেয়ার করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা আমির খানের সঙ্গে। তখন সেই...

বাড়ির সর্বত্র এদের অবাধ বিচরণ, এই উপায়ে উৎপাত থেকে মুক্তি পান

খাস ডেস্ক: প্রায় সবার বাড়িতেই টিকটিকির ‘অনুপ্রবেশ’ ঘটে। ঘরের আনাচে কানাচে, প্রায় সর্বত্র এদের অবাধ বিচরণ। একে দেখে নিরীহ প্রাণী মনে হলেও টিকটিকি কিন্তু...

খবর এই মুহূর্তে

তিরন্দাজিতে এল না কোনও পদক, প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে বিদায় বাংলার অতনুর

খাস খবর ডেস্ক: টোকিও অলিম্পিকে ভারতের তিরন্দাজ তথা বাংলার ছেলে অতনু দাস দক্ষিণ কোরিয়ার ওহ জিন হিয়েককে হারিয়ে পুরুষদের ব্যক্তিগত ইভেন্টের তৃতীয় রাউন্ডে পৌঁছেছিলেন।...

মাস্ক না পরলে এবার প্রকাশ্যে কান ধরে উঠবস করতে হবে

নদিয়া: হয় বিধি মানো, না হলে নিজের লাজ লজ্জা খুইয়ে প্রকাশ্য রাস্তায় কান ধরে উঠ বস করো! শুধু উঠ বস করলেই হবে না, মুখে...

ভয় কাটিয়ে দেশে ২.২৭ লক্ষ গর্ভবতী মহিলা নিয়েছেন টিকার প্রথম ডোজ: কেন্দ্র

নয়াদিল্লি: গর্ভবতী মহিলাদের করোনার টিকা দেওয়া নিয়ে নানান ভ্রান্ত ধারনা তইরি হয়েছিল। তবে সেই ভয় কেটেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক শুক্রবার জানিয়েছে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে...

মৃত্যু নিশ্চিত করতে মালকিনের গলায় ফাঁস দিয়েছিল পরিচারক

সল্টলেক: প্রথমে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন৷ তারপরও মৃত্যু নিশ্চিত করতে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করা হয়েছিল ৬২ বছরের বৃদ্ধাকে। ১০ দিনের মধ্যে...