33 C
Kolkata
Saturday, April 17, 2021
Home খাস পলিটিক্স নিজের তৈরি জমিতে ‘মাটি’ পাচ্ছেন না শুভেন্দু

নিজের তৈরি জমিতে ‘মাটি’ পাচ্ছেন না শুভেন্দু

রানা দাস ও সৌমেন শীল, নন্দীগ্রাম: চৈত্র্যের তাপকেও হার মানাবে এলাকার রাজনৈতিক উত্তাপ৷ মাঝে ছোটখাটো রাজনৈতিক গোলমাল যে হয়নি তা নয়৷ তবে ১৪ বছরের ব্যবধানে ফের তপ্ত হয়ে উঠছে সেদিনের জমি আন্দোলনের গর্ভগৃহ৷ সাত সকালে নন্দীগ্রামের মাটিতে পা রেখেই সেটা আন্দাজ করে বলেছিলাম অনুজ সহকর্মী সৌমেনকে৷ ঘণ্টাখানেকের ব্যবধানে মুখের কথা যে এভাবে সত্যি হয়ে উঠবে, তা কে জানত!

- Advertisement -

এ সেই নন্দীগ্রাম৷ টানা এক বছরেরও বেশি সময় ধরে এখানে কাজ করার দৌলতে চোখের সামনে দেখেছি, শুভেন্দু আর নন্দীগ্রাম যেন সমার্থক৷ স্বভাবতই সোনাচূড়ায় শুভেন্দুর সভা আছে শুনে সেদিকেই এগোচ্ছিলাম আমরা৷ দূর থেকে হাওয়ায় ভেসে আসছিল, ‘গো ব্যাক স্লোগান৷’৷ কাছে গিয়ে যা দেখলাম, তাতে নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছিল!

সোনাচুড়া বাজারের ওপর রক্তাক্ত সেদিনের জমি আন্দোলনের অন্যতম রূপকার খোকন শিট৷ চিৎকার করে বলছেন, ‘‘হার্মাদদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে শুভেন্দু৷ ওরা আবার জমি নিতে আসবে৷’’ পথ অবরোধে সামিল হয়েছেন স্থানীয় তৃণমূলীরা৷ সেখান থেকে ঘন ঘন স্লোগান উঠছে, ‘গো ব্যাক, শুভেন্দু’. ‘নন্দীগ্রামের বিশ্বাসঘাতক, দূর হঠাও’৷

- Advertisement -

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, এদিন সকালে সোনাচূড়া বাজারে বিজেপির একটি সভা ছিল৷ সেখানে হাজিরও হয়েছিলেন নন্দীগ্রামের একদা জমি আন্দোলনের অন্যতম প্রধান কান্ডারী শুভেন্দু অধিকারী৷ কিন্তু স্থানীয় তৃণমূলীদের পাল্টা স্লোগানের জেরে সভা না করেই ফিরতে হয়েছে তাঁকে৷ তারই জেরে বচসা থেকে মারধরে জড়িয়ে পড়ে দু’পক্ষ৷ নিটফট, ‘দাদা’র লোকেদের হাতে রক্তাক্ত হতে হয় জমি আন্দোলনের খোকন শীটকে৷

ফ্ল্যাশব্যাকে ফিরে তাকালে দেখা যাবে, এই ক’মাস আগেও নন্দীগ্রামের শেষ কথা ছিলেন শুভেন্দু৷ হঠাৎ এই পরিবর্তন কেন? শুধুই কি রঙ বদল? নাকি আরও অন্য কারণ রয়েছে? প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে দিনভর চষে বেরিয়েছি গোকুলনগর, মহেশপুর, তেখালি বাজার, সোনাচূড়া, গড়চক্রবেড়িয়ার মতো এলাকা৷ মানুষের মধ্যে থেকে উঠে এসেছে একাধিক মত৷ কিন্তু নন্দীগ্রামের মনের তল? প্রেয়সীর মন বোঝার চেয়েও দুঃসাধ্য!

- Advertisement -

কারণ, লড়াই এবার দাদা বনাম দিদির৷ আরও স্পষ্ট করে বললে, নন্দীগ্রামের মাটিতে লড়াই এবার সেয়ানে সেয়ানে৷ কে কার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছে, সেটা নিয়ে চোরাস্রোত বইছে তালপাটি খাল লাগোয়া বিস্তৃর্ণ গঞ্জটির অন্দরে৷ পুলিশ রয়েছে৷ রয়েছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানেরাও৷ খেলার মাঠে রয়েছেন বিজেপি বনাম তৃণমূলের খেলোয়াড়রা৷ বামেরা থাকলেও আড়েবহরে তা নিতান্তই পাতে দেওয়ার মতো নয়৷

বিজেপির অভিযোগ, নন্দীগ্রামের সর্বত্রই তাঁদের সভা ভন্ডুলের চেষ্টা করছে তৃণমূল৷ তারই জেরে সোনাচুড়ার মতো এদিন শুভেন্দুর সভা ভন্ডুল হয়ে গিয়েছে গোকুলনগর, আমগাছিয়াতেও৷ পাল্টা হিসেবে তৃণমূলের তরফে দাবি করা হচ্ছে, এটা মানুষের স্বত:স্ফূর্ত প্রতিবাদ৷ এর সঙ্গে দলের কোনও সম্পর্ক নেই৷ রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করিয়ে দিচ্ছেন, মুখ্যমন্ত্রী বনাম শুভেন্দু অধিকারী৷ একে গুরু-শিষ্যর লড়াই তার ওপরে আবার জায়গার নাম নন্দীগ্রাম৷ ফলে লড়াইয়ের জমি যে ক্রমেই আরও তপ্ত হয়ে উঠবে তা বলাইবাহুল্য৷

হচ্ছেও তাই৷ দুপুরে সেই ছবি উঠে এল গড় চক্রবেড়িয়ায়৷ রাস্তার ওপর গাছের গুঁড়ি ফেলে পথ অবরোধে বসে পড়েছেন মহিলারা৷ কেন? জানালেন, সিআরপিএফের জওয়ানেরা তাঁদের অকারণে লাঠি চার্জ করেছেন৷ তারই প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ৷ গল্পটা কি? খোঁজ নিয়ে জানা গেল, বিজেপির এক তরুণী কর্মীকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না৷ এই খবর পাওয়ার পরই সক্রিয় হয়েছিলেন জওয়ানেরা৷ তারই জেরে পাল্টা অবরোধের পথে হেঁটেছেন গ্রামের মহিলারা থুড়ি তৃণমূলের মহিলা ব্রিগেড৷

অনুজ সহকর্মী বলেই ফেললেন, ‘‘সত্যি দাদা, মানতেই হবে৷ নন্দীগ্রামের মানুষের এনার্জি আছে৷ না হলে কথায় কথায় পরিবারকে সঙ্গে নিয়ে রাস্তা ঘিরে অবরোধে সামিল হওয়া কি চাট্টিখানি কথা!’’ খেলা সত্যিই শুরু হয়ে গিয়েছে৷ নন্দীগ্রামের মাটিতে পা না রাখলে বোঝা যেত না৷ তবে কে কার হয়ে খেলছেন, সত্যি খেলছেন নাকি খেলার ছলে বিশ্বাসঘাতকতা করছেন, সেই দ্বন্দটা রয়েই যাচ্ছে৷ যে দ্বন্দ সারাদিনে বারবার ফুটে উঠেছে পদ্ম থেকে ঘাসফুল কর্মীদের শরীরী ভাষায়৷ আপাতত যার সদুত্তর জানতে ২ মে পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে৷

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

স্বামী মেয়ে ছেলেকে নিয়ে পাহাড়ে ঘুরে এলেন জোজো

অর্পিতা দাস: গত বছর থেকেই জোজোর জীবনে এসেছেন তাঁর ছোট্ট ছেলে আদিপ্ত। তাই এখন জীবনটা অনেকটাই বদলে গেছে জোজোর জন্য। কাজ ছাড়াও নিজেকে এবং...

নাবালকের সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হয়ে শ্রীঘরে তিন সন্তানের মা

খাস খবর ডেস্ক: প্রায় সাত-আট বছরের দাম্পত্য জীবনে জন্ম দিয়েছেন তিন সন্তানের। তারপরেও কম বয়সী ছেলের শরীর দেখে নিজেকে সামলাতে পারেনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ...

শীতলকুচি কাণ্ড : বিজেপি নেতাদের জেলে ঢোকান, পাশে আছি: মমতাকে বার্তা অধীরের

বালুরঘাট: শীতলকুচির ঘটনায় এবার প্রকাশ্যেই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়ালেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী৷ জানিয়ে দিলেন, শীতলকুচির ঘটনায় কুকথা বলা বিজেপি নেতাদের...

শীতলকুচি যাবেন দিলীপ ঘোষ, নিহতদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া নিয়ে কটাক্ষ রাজ্যকে

পলাশ নস্কর, দমদম: শীতলকুচির (Sitalkuchi) ঘটনা নিয়ে উত্তপ্ত বঙ্গ রাজনীতি৷ চলছে দোষারোপ ও পাল্টা দোষারোপের পালা৷ ঘটনার দায় বিজেপি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের (Amit...

খবর এই মুহূর্তে

করোনা যুদ্ধে ‘মসিহা’ সোনুই এবার কোভিড পজিটিভ

মুম্বই: দেশজুড়ে হু হু করে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রের অবস্থা সবচেয়ে বেশি ভয়ংকর। সাধারণ মানুষের মতন বি-টাউনেও একের পর এক তারকা করোনায়...

আগ্নেয়াস্ত্র উঁচিয়ে বুথের সামনে নির্দল প্রার্থী,চাকদায় চাঞ্চল্য

চাকদহ: রাজ্যে পঞ্চম দফায় চাঞ্চল্যকর ঘটনা নদীয়ার চাকদহে৷ সেখানে এক নির্দল প্রার্থী (Independent candidate)পিস্তল (firearms)নিয়ে ভোটারদের ভয় দেখাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ৷ যদিও ওই প্রার্থী শোনালেন...

করোনায় মারা গেলেন মুরারইয়ের বিদায়ী তৃণমূল বিধায়ক আব্দুর রহমান

খাসখবর ডেস্ক: মারা গেলেন তৃণমূলের বিদায়ী বিধায়ক আব্দুর রহমান (Abdur Rahman)৷ করোনায় (Corona) আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি৷ কলকাতার আরএন টেগোর হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছিল৷ শনিবার...

west bengal assembly election 2021: শুন্য থেকে ২২, ৪৫ এ কত, জল্পনা গেরুয়ার অন্দরে

কলকাতা: পাঁচ বছর আগেও সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলিতে তাঁদের খুঁজতে হলে ব্যবহার করতে হত দূরবীন৷ এহেন এলাকাতেই গত লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলের নিরিখে নজরকাড়া সাফল্য এসেছে গেরুয়া...