‘কপালে যদি লবডঙ্কা লিখে রাখেন…’, মন্ত্রীত্ব না পাওয়া নিয়ে ফের মুখ খুললেন Madan Mitra

0
46

খাস ডেস্ক: পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পর তাঁকে মন্ত্রিসভা থেকে অপসারণ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর হাতে থাকা তিনটি দফতরের দায়িত্ব থেকেই অব্যাহতি দেওয়া হয় তাঁকে। এরপর মন্ত্রিসভার রদবদলের মাধ্যমে সেই দায়িত্ব ভাগ করে দেওয়া হয়। মন্ত্রীত্বের দায়িত্বে আসে ৮ নতুন মুখ। কিন্তু বর্ষীয়াণ নেতা মদন মিত্রকে মন্ত্রীত্ব দেওয়া হয়নি। এনিয়ে আবারও মুখ খুললেন কামারহাটির বিধায়ক।

আরও পড়ুন: চাকরির নামে নেওয়া টাকা ফেরত না দেওয়ায় শ্লীলতাহানি তৃণমূল নেত্রীর

- Advertisement -

রবিবার সস্ত্রীক খড়দহ শ্যামসুন্দর জিউর মন্দিরে পুজো দিতে আসেন মদন মিত্র। সেখানেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলে তাঁকে প্রশ্ন করা হয় মন্ত্রীত্ব না পাওয়া নিয়ে আক্ষেপ রয়েছে কি না? জবাবে বিধায়ক জানান, ‘বিধাতার অভিপ্রায়ের উপর কারও হাত চলতে পারে না। বিধাতা যদি আমার কপালে লবডঙ্কা লিখে দিয়ে থাকে তাহলে ঠকঠকালে হবে কি!’ তবে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রসঙ্গে বলেন, ‘মমতা বন্দোপাধ্যায় আমাকে মন্ত্রী করেছেন, বিধায়ক করেছেন। এছাড়া আরও একটি জিনিস দিয়েছেন – আমার নাম। গোটা পশ্চিমবঙ্গে মদন মিত্র নাম শুনলেই লোকে এককথায় জিজ্ঞেস করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মদন মিত্র? তৃণমূলের মদন মিত্র।

আরও পড়ুন: Video : পন্থের ছেলে মানুষী দেখে মাঠেই চিৎকার করে ফেলেন রোহিত

জোকা ইএসআই হাসপাতালে পার্থ চট্টোপাধ্যায় দাবি করেছিলেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া টাকা তাঁর নয়। এমনকি তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার। এনিয়ে মদন মিত্র বলেন, ‘পার্থ চট্টোপাধ্যায় যদি বুঝতে পারেন যে তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে তাহলে বলে দিক কে আছে এর পিছনে? এত টাকা কার!’