পাঞ্জাবের পর কেজরিওয়ালের নজরে মোদীর রাজ্য, দুই সপ্তাহের মধ্যে ফের গুজরাট সফরে আপ সুপ্রিমো

0
33
AAP

চণ্ডীগড়: কংগ্রেসকে হারিয়ে পাঞ্জাবে ক্ষমতা দখলের পর এবার কেজরিওয়ালের নজর পড়েছে প্রধানমন্ত্রী  নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য গুজরাটের দিকে। সামনেই রয়েছেন রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। সেটাকেই পাখির চোখ করে এগিয়ে চলছে আম আদমি পার্টি। গুজরাটে নিজেদের ভিত শক্ত করতে AAP জাতীয় আহ্বায়ক এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ১১ মে গুজরাট সফর করবেন। ওই একই দিনে করবেন সমাবেশও।

আপের পক্ষ থেকে রবিবার জানানও হয়েছে দুই সপ্তাহের মধ্যে এটি হবে কেজরিওয়ালের দ্বিতীয় নির্বাচনী রাজ্য সফর। তিনি ১ মে ভারুচ জেলায় ভারতীয় উপজাতি পার্টি (বিটিপি) নেতা ছোটু ভাসাভার সাথে যৌথভাবে একটি আদিবাসী সমাবেশে ভাষণ দিয়েছিলেন। জানিয়ে রাখা ভাল, বিজেপি প্রায় তিন দশক ধরে গুজরাটে ক্ষমতায় রয়েছে। গুজরাটের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির বিরুদ্ধে কঠিন লড়াই করতে কংগ্রেস ব্যর্থ হওয়ার পর সেই জায়গাই নিতে চাইছেন কেজরিওয়াল। রাজ্যে বিজেপির সরকাররে শাসন ও শিক্ষাব্যবস্থা, স্বাস্থ্য নিয়ে একাধিকবার খোঁচা দিয়েছেন। এমনকি কেজরিওয়াল গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীকে দিল্লি গিয়ে তাঁর সরকারি স্কুলের শিক্ষাব্যবস্থা ঘুরে দেখে আসার আহ্বানও জানিয়েছিলেন। শুধু তাই নয় মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেলকে প্রশ্নপত্র ফাঁস ছাড়া একটা পরীক্ষা নিয়ে দেখান

আরও পড়ুন- টাকা নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার ভুয়ো মানবাধিকার কমিশনের কর্মী

গত বারের গুজরাট সফরের সময় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী গেরুয়া শিবিরকে নিশানা করে বলেছিলেম তিন দশক ধরে ক্ষমতায় থাকায় বিজেপি অহংকারী হয়ে উঠেছে। সেই সঙ্গেই জনগণকে AAP-কে একটি সুযোগ দেওয়ার জন্য অনুরোধও করেছিলেন। আপ গুজরাটের স্কুল এবং হাসপাতালগুলিকে রূপান্তরিত করবে বলেও দিয়েছেন আশ্বাস। তবে সুধু কেজরিওয়াল নয় নির্বাচনের মাত্র কয়েক মাস বাকি থাকায় বিজেপি এবং কংগ্রেসও তাদের রাজনৈতিক প্রচার শুরু করেছে। প্রাক্তন কংগ্রেস প্রধান রাহুল গান্ধীও আগামী ১০ মে রাজ্যে যাবেন এবং আদিবাসী অধ্যুষিত দাহোদে ‘আদিবাসী সত্যাগ্রহ সমাবেশে’ ভাষণ দেবেন। সব মিলিয়ে আসন্ন গুজরাটের বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে যে রাজনৈতিক মহলের পারদ চড়ছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে যাই হোক পাঞ্জাবের পর আপ গুজরাটে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করতে পারে কিনা সেই দিকে নজর রয়েছে সকলেই।