হুগলির এই বিখ্যাত মন্দিরে দুই ডাকাতকে কালীরূপে দেখা দিয়েছিলেন মা সারদা

0
58

বিশ্বদীপ ব্যানার্জি: সিঙ্গুরের বিখ্যাত ডাকাত কালী মন্দির। এই মন্দিরের নাম অনেকেরই জানা। শ্রীশ্রীমা সারদার একটি অলৌকিক ঘটনা জড়িয়ে রয়েছে দেবালয়টির সঙ্গে। এর ফলেই এর তাৎপর্য বা মাহাত্ম্য বৃদ্ধি পেয়েছে।

আরও পড়ুন: সৃষ্টির পাশাপাশি জগতকে ধ্বংস-ও করেন দেবী ভদ্রকালী, চিনে নিন তাঁকে

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

ঘটনাটি ঠাকুর রামকৃষ্ণ পরমহংসদেব বেঁচে থাকাকালীন। একবার দক্ষিণেশ্বরে ঠাকুর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। সেই খবর শুনে মা স্বামীর কাছে আসছেন, এমন সময় সিঙ্গুরে এই কালীবাড়ির কাছে একদল ডাকাত মায়ের পথ আটকে দাঁড়াল। রঘু ডাকাত এবং গগন ডাকাত এই দলের দুই মাথা।

তারা হয়ত মাকে মেরেই ফেলত। কিন্তু পারল না। বরং মায়ের চোখের দিকে তাকিয়ে নিজেরাই কুঁকড়ে যায়। কেন? তাঁরা নাকি এ সময় শ্রীমায়ের মধ্যে মা কালীকে দর্শন করেছিলেন। মায়ের চোখে দুই ডাকাত সর্দার মা কালীর রক্তচক্ষু দেখতে পেয়েছিল। ঠিক যেমনটা ডাকাত কালীমন্দিরের বিগ্রহে দেখতে পাওয়া যায়।

বলাই বাহুল্য, এরপর রঘু-গগন মায়ের কাছে ক্ষমা চায়। তাঁকে থাকার ব্যবস্থা করে দেয়। কথিত আছে, এরপর নাকি ডাকাতযুগল মাকে চাল ভাজা আর কড়াই ভাজা খেতে দিয়েছিল। পরবর্তীকালে এখানেই মা সারদার একটি মন্দির নির্মিত হয়। এই মন্দিরে আজও মাকে চাল ভাজা আর কড়াই ভাজা ভোগ দেওয়া হয়।