হিন্দুদের পবিত্র ঝুলন উৎসব কেন পালন করা হয় জানেন

0
46

বিশ্বদীপ ব্যানার্জি: শ্রাবণ মাসের পূর্ণিমাকে বলা হয় রাখী পূর্ণিমা বা ঝুলন পূর্ণিমা। এই পূর্ণিমার আগে পালিত হয় হিন্দুদের অন্যতম পবিত্র উৎসব, ঝুলনযাত্রা (Jhulan Yatra)। একাদশীর দিন শুরু হয় এই ঝুলনযাত্রা। চলে পূর্ণিমা পর্যন্ত। অর্থাৎ টানা চারদিনব্যাপী উৎসব।

আরও পড়ুন: রাবণ আসলে ছিলেন পরম বিষ্ণুভক্ত, ভক্তি থেকেই মরতে চেয়েছিলেন রামের হাতে

- Advertisement -

আরও পড়ুন: বিবেকানন্দ শুধু ধর্ম প্রচার করুন, চাইতেন না ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ

কিন্তু কেন পালিত হয় এই ঝুলনযাত্রা? প্রতিটি পার্বণের নেপথ্যে-ই কোনও না কোনও না ব্যখ্যা রয়েছে। রয়েছে কোনও না কোনও পৌরাণিক কারণ। ঝুলন-ও নিশ্চয়ই ব্যতিক্রম নয়। এর নেপথ্যেও রয়েছে একটি পৌরাণিক ব্যখ্যা। কী সেই ব্যখ্যা?

ঝুলনযাত্রা রাধাকৃষ্ণের প্রেমের অন্যতম অঙ্গ। যুগলের প্রেম কাহিনীকে স্মরণীয় করে রাখতেই এই উৎসব। ঠিক যেমন পালিত হয় রাস বা দোল উৎসব। সেই একই কারণে— রাধা ও কৃষ্ণের মিলনকে মাথায় রেখেই পালন করা হয় ঝুলনযাত্রা (Jhulan Yatra)। কথিত, দ্বাপর যুগে বৃন্দাবনে শ্রীকৃষ্ণ এবং শ্রীরাধিকাকে দোলনায় দুলিয়ে আনন্দে মেতে উঠেছিলেন গোপীরা। ঝুলন অর্থাৎ ঝোলানো বা দোলানো।

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

সে কারণেই ঝুলনের পাঁচদিন রাধাকৃষ্ণকে দোলনায় দুলিয়ে উৎসবে মেতে ওঠেন ভক্তরা। এছাড়া খেলনা প্রভৃতি দিয়ে যেভাবে ঘর সাজানো হয়, তা আনুষাঙ্গিক। মূলতঃ রাধাকৃষ্ণকে ঝোলানো বা দোলানো-ই এই উৎসবের মুখ্য কর্মসূচি। বৃন্দাবন-মথুরা তো বটেই, এছাড়াও ভারতের একাধিক বৈষ্ণব তীর্থক্ষেত্রে সাড়ম্বরে পালিত হয় ঝুলনযাত্রা। এছাড়া বিভিন্ন বাড়িতেও পালন করা হয় এই পবিত্র উৎসব।