রাজস্থানের ছোট্ট গ্রাম থেকে বাংলার রাজ্যপাল, কেমন ছিল জগদীপ ধনখড়ের জীবন

0
46

খাস ডেস্ক: বাংলায় রাজ্যপালের দায়িত্বে আসার পর থেকেই বারবার প্রকাশ্যে এসেছে রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাত। একাধিক বিষয়ে তৃণমূল সরকার এবং বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করেছেন এবং রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। যদিও, পাল্টা জবাব দিতে ছাড়েনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলও। আজ, ১৮ মে জগদীপ ধনখড়ের ৭১ তম জন্ম দিবস। এই বিশেষ দিনে একনজরে চিনে নিন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালকে।

আরও পড়ুন: পর্যটকদের সুবিধার্থে থাকছে লিফট ও জিম, নতুন করে সেজে উঠছে NJP রেলস্টেশন

১৯৫১ সালের ১৮ মে রাজস্থানের একটি ছোট্ট গ্রাম কিথানাতে জন্মগ্রহণ করেন জগদীপ ধনখড়। কিথানার এক সরকারি বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষালাভ করেন। চিতোরগড়ের সৈনিক স্কুল থেকে পাশ করেন তিনি। এরপর রাজস্থান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থবিজ্ঞানে বিএসসি অনার্স এবং ১৯৭৮ সালে এলএলবি পাশ করেন। শিক্ষাজীবনে বেশ মেধাবী ছাত্র ছিলেন ধনখড়।

১৯৭৯ সালে একজন আইনজীবী হিসেবে রাজস্থানের বার কাউন্সিলের নথিভুক্ত হন। ১৯৯০ সালের মার্চ মাসের রাজস্থানের বিচারবিভাগ দ্বারা প্রবীণ আইনজীবী হিসেবে মনোনীত হন। ২০১৯ সালের ৩০ জুলাই মাসে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল হিসেবে শপথ নেওয়া অবধি রাজ্যের সবচেয়ে প্রবীণ-নির্ধারিত প্রবীণ অ্যাডভোকেট ছিলেন। ১৯৯০ সাল থেকে জগদীপ ধনখড় সুপ্রিম কোর্টে প্র্যাকটিস করতেন। তাঁর মামলার কেন্দ্রবিন্দু ছিল মূলত ইস্পাত, খনি সহ অন্যান্য।

আরও পড়ুন: গুজরাট নির্বাচনের আগে বড় ধাক্কা কংগ্রেসে, দল ছাড়লেন হার্দিক প্যাটেল

জগদীপ ধনখড় পেশায় একজন আইনজীবী হলেও রাজনীতির দিকে তাঁর বরাবরই আগ্রহ ছিল। ১৯৮৯ সালে জনতা দল (সংযুক্ত) দলের হয়ে রাজস্থানের ঝুনঝুনু লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ নির্বাচিত হন। ১৯৯০ সালে সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান এবং ওই একই সালেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দায়িত্ব পান তিনি। রাজস্থানের বিধানসভা ভোটে আজমির জেলার কিশানগড় কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়ে ১৯৯৩-৯৮ সাল পর্যন্ত বিধায়ক ছিলেন ধনখড়।

১৯৭৯ সালে সুদেশ ধনখড়ের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন জগদীপ ধনখড়। তাঁর স্ত্রী শিশুশিক্ষা সহ বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত। তাঁদের একটি মেয়ে রয়েছে কামনা। কামনা এবং তাঁর স্বামী কার্তিকেয়-র একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। ২০১৫ সালে জন্ম হয় তাঁদের ছেলে কাভিশের।

উল্লেখ্য, প্রাক্তন বিজেপি নেতা এবং বর্তমান বাংলার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় সস্ত্রীক কানাডা, ইতালি, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, চিনা, হংকং, সিঙ্গাপুর সহ বিশ্বের একাধিক দেশে ভ্রমণ করেছেন।