পরকীয়ায় মজেছে মন, চাইলে এভাবে দুটো বিয়ে করতে পারেন আপনিও

0
72

লখনউ: কথায় বলে, ভাগ্যবানের বোঝা ভগবান বয়! সেই অর্থে ইনি ভাগ্যবান! কারণ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগে বিবাহিত পুরুষটির এতদিনে থাকার কথা ছিল হাজতে৷ কিন্তু পরিবারের ‘সহায়তা’য় আইনি শাস্তি থেকে রেহাই তো পেয়েইছেন, উল্টে একই সঙ্গে দুই স্ত্রীর সোহাগও পাচ্ছেন তিনি৷

উত্তরপ্রদেশের রামপুর জেলার ধোকপুরি তান্ডা এলাকার ঘটনা৷ সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওয় সামনে এসেছে এক বিবাহিত পুরুষের এক নারীতে সন্তুষ্ট না হওয়ার গল্প৷ বিবাহিত পুরুষটির সহ ধর্মিনী তো বটেই রয়েছে দুটি সন্তানও৷ তবু সোশ্যাল সাইটের দৌলতে মন মজেছিল অন্য নারীতে৷ বেমালুম বিয়ের কথা চেপে নতুন নারী-সঙ্গ পেতে ফোনা-লাপ৷ সেখান থেকেই দেখা-সাক্ষাৎ৷ মন দেওয়া-নেওয়ার পালারও পথ চলা শুরু তখন থেকেই৷ এরপরই মাঝে মধ্যে অফিসের ‘কাজ’ দেখিয়ে প্রেমিকার সঙ্গে নিরালায়, নির্জনে একাকী সময় কাটানোর শুরুয়াৎ৷

- Advertisement -

পুলিশ জানাচ্ছে, প্রেমিকা গর্ভবতী হয়ে পড়েছেন বুঝতে পেরে এরপরই প্রেমিকার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন ওই ব্যক্তি৷ এদিকে প্রেমিককে ফিরে পেতে মরিয়া গর্ভবতী তরুণী খোঁজ করতে করতে হাজির হয় উত্তরপ্রদেশের রামপুর জেলার সংশ্লিষ্ট থানায়৷ সেখান থেকেই পুলিশের সহায়তায় প্রেমিকবরের খোঁজ পান তিনি৷ সেখানে গিয়েই জানতে পারেন, তাঁর হবু বর আগে থেকেই বিবাহিতা! নাছোড় তরুণী এরপরই প্রতারণা, সহবাসের মামলা ঠুকতে উদ্যত হন৷

স্বামীকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেন প্রথম স্ত্রী৷ বাবার পাশে দাঁড়ায় সন্তানেরাও৷ এরপরই স্ত্রী, সন্তানদের উপস্থিতিতে দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসেন এক নারীতে সন্তুষ্ঠ না হওয়া ওই ব্যক্তি৷ সেখানে তরুণী জানিয়ে দেন, সপ্তাহে তিনদিন তার কাছে থাকতে হবে৷ অগত্যা, এরপর থেকেই সপ্তাহে তিনদিন করে দুই স্ত্রীর কাছে কাটান ওই ব্যক্তি৷ বাকি একটি দিন থাকেন মা, বাবার সঙ্গে৷ নিন্দুকেরা অনেক কথা বললেও ওই ব্যক্তি কিন্তু গর্ব করে বলছেন, ‘‘এমন বউ পাওয়াটাও ভাগ্যের ব্যাপার৷’’

আরও পড়ুন: আবারও গ্যাসের দাম বাড়বে, বিধানসভায় আশঙ্কা প্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর