গোসাইহাটে ভূতুড়ে কাণ্ড, আতঙ্কে বাসিন্দারা

0
109

মালদহ: আতঙ্কে থরহরিকম্প বাসিন্দারা৷ দিন নেই, রাত নেই যখন তখন দাউ দাউ করে জ্বলে উঠছে আগুন৷ অন্য কোথাও নয়, আগুন লাগছে শুধু মাত্র জামাকাপড়ে৷ ইতিমধ্যেই বাড়ির অর্ধেক জামাকাপড় আগুনে পুড়ে ছাড়খার হয়ে গিয়েছে৷ পরিস্থিতির পিছনে ভৌতিক কোনও কারণ আছে বলে মনে করছেন বাসিন্দারা৷ যার জেরে একবিংশ শতাব্দীতেও ভূতের আতঙ্ক গ্রাস করেছে আস্ত তল্লাটকে৷ যদিও ওয়াকিবহাল মহলের মতে, ভূতুড়ে কোনও কাণ্ড নয়৷ ওই এলাকায় কোনওভাবে গোবর গ্যাসের প্রভাব তৈরি হয়ে থাকতে পারে৷ তার থেকেই বাতাসের মাধ্যমে এই অগ্নি সংযোগ ঘটতে পারে৷

বাসিন্দারা জানিয়েছেন, কোন উৎস ছাড়াই বাড়িতে হঠাৎ হঠাৎ করে জ্বলে উঠছে আগুন। বিশেষ করে আগুন ধরছে জামা-কাপড়, বিছানা পত্রে। এমনই অদ্ভুত ঘটনার জেরে গত বেশ কিছুদিন ধরে আতঙ্কে দিন কাটছে মালদার কালিয়াচক-২নং ব্লকের বাঙ্গীটোলার গোঁসাই হাট এলাকার হাজারিটোলার একাধিক পরিবারের। জানা যায় গত শুক্রবার থেকে গোসাইহাট এলাকার বাসিন্দা ইসমাইল সেখ নামে এই পরিবারে কোনও কারন ছাড়াই হঠাৎ করে জ্বলে উঠছে আগুন।

পরিবারের বধূ আলিমা খাতুন বলছেন, ‘‘অদ্ভূত ঘটনা৷ আমাদের চোখের সামনে কিন্তু আগুন জ্বলছে না৷ একটু চোখের আড়াল হলেই দাউ দাউ করে জ্বলে উঠছে আগুন৷ পরিস্থিতি এমন যে ভয়ে আলনায় জামাকাপড়ও রাখার জো নেই৷’’ হতবাক এলাকাবাসীও। ইসমাইল শেখ বলেন, ‘‘জীবনে কখনও ভূত দেখিনি ঠিকই কিন্তু একে ভূতুড়ে কাণ্ড ছাড়া আর কি বা বলি বলুন? শুধু মাত্র জামা কাপড়েই আগুন ধরছে৷ ফলে গায়ে জামাকাপড় রাখাটাও ঝুঁকির হয়ে যাচ্ছে৷’’ ওয়াকিবহাল মহল অবশ্য জানাচ্ছে, এলাকায় সচেতনতা শিবিরের প্রয়োজন রয়েছে৷ কারণ, গোবর গ্যাস জাতীয় কোনও কিছু থেকেই এসব হচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে৷

আরও পড়ুন: পরকীয়ায় মজেছে মন, চাইলে এভাবে দুটো বিয়ে করতে পারেন আপনিও