কুসংস্কার দূর করতে শ্মশানের মধ্যে কেক কেটে, অতিথি নিমন্ত্রণ করে জন্মদিন পালন

0
16
Birthday in crematorium

থানে: আমারা একবিংশ শতাব্দীতে বাস করলেও কিছু কিছু বিষয়ের উপর থেকে কুসংস্কার এখনও যায়নি। বিভিন্ন শুভ কাজের সময় এবং জায়গা নিয়ে রয়েছে একাধিক কুসংস্কার। সেটা ভাঙতেই নতুন পন্থা নিতে দেখা গেল এক ব্যক্তিকে। হোটেল, বাড়ি বা কোনও রিসোর্ট নয় শ্মশানের মধ্যেই জন্মদিন Birthday in crematorium) পালন করেছেন এক ব্যক্তি। এমনকি অতিথিদেরও নিমন্ত্রণ করেছিলেন।

মহারাষ্ট্রের থানে জেলার কল্যাণ শহরের একজন বাসিন্দা সমাজে প্রচলিত অন্ধ বিশ্বাস ও কুসংস্কারের বিরুদ্ধে একটি বার্তা দিতে একটি শ্মশানে তাঁর জন্মদিন উদযাপন করেছেন। গৌতম রতন মোর, যিনি ১৯ নভেম্বর ৫৪ বছরে পা দেন তিনি শনিবার রাতে মোহনে শ্মশানে একটি জন্মদিনের পার্টির আয়োজন করেছিলেন । সেখানেই অতিথিদের কেকের পাশাপাশি বিরিয়ানি পরিবেশন করা হয়েছিল। বড় ব্যানার সহ কেক কেটে জন্মদিন উদযাপনের একটি ভিডিও বুধবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। অনুষ্ঠান চলাকালীন সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় গৌতম রতন মোর বলেছেন, তিনি বিখ্যাত সমাজকর্মী সিন্ধুতাই সাপকাল এবং প্রখ্যাত যুক্তিবাদী প্রয়াত নরেন্দ্র দাভোলকরের কাছ থেকে অনুষ্ঠানের অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন, যিনি অন্ধ বিশ্বাস, কালো জাদু এবং কুসংস্কারের বিরুদ্ধে প্রচার করেছিলেন।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে জিততে এই বিশেষ কৌশল রপ্ত করছে এটিকে মোহনবাগান

৫৪ বার্থডে বয় আরও বলেছেন, তিনি সকল মানুষের কাছে একটি বার্তা পাঠাতে চেয়েছিলেন যে ভূত, সাধারণত শ্মশান (Birthday in crematorium) বা এই জাতীয় অন্যান্য জায়গাগুলির সঙ্গে যুক্ত থাকে না। ৪০ জন মহিলা ও শিশু সহ ১০০ জনেরও বেশি অতিথি তাঁর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন। গৌতম রতন মোরের এই কাজের অনেকেই প্রশংসা করেছেন। এমনকি এটাও বলেছেন সমাজের মধ্যে থাকা কুসংস্কার দূর করতে এই ধরণের পদক্ষেপ জরুরি বলেই উল্লেখ করেছেন।

https://play.google.com/store/apps/details?id=app.aartsspl.khaskhobor