29 C
Kolkata
Wednesday, July 28, 2021
Home News Desk কাঠগড়ায় লকডাউন-অনলাইন গেম, ছোটদের রথ বিক্রি কমেছে শ্রীরামপুরে

কাঠগড়ায় লকডাউন-অনলাইন গেম, ছোটদের রথ বিক্রি কমেছে শ্রীরামপুরে

শান্তনু কর্মকার : করোনার জেরে টানা দু’বছর গড়ায়নি মাহেশের বিখ্যাত রথের চাকা। গতবছরের মতোই এবারও সামাজিক দুরত্ববিধি মেনেছে শহর, প্রতি বছরের মতো রথযাত্রায় লোকে লোকারণ্য হয়নি শ্রীরামপুর। লকডাউনের জেরে টান পড়েছে সাধারণ মধ্যবিত্তের পকেটেও। তাছাড়া, নতুন প্রজন্ম সারাদিন মজে আছে অনলাইন গেমে। এই কারণেই শ্রীরামপুরে অন্য বছরের তুলনায় কম বিক্রি হচ্ছে ছোটদের রথ।

- Advertisement -

বেশি নয়, আজ থেকে তিন-চার বছর আগেও রথযাত্রার দিন শ্রীরামপুরের রাস্তায় দেখা যেত, রথ টানছে কচিকাঁচা থেকে শুরু করে পাড়ার দামাল ছেলেমেয়ের দল। ফুলমালা দিয়ে সাজানো হত ছোট রথগুলিকে, সুভদ্রা-বলরামের সঙ্গে রথে চেপে মাসির বাড়ি যেতেন জগন্নাথ দেব। রাস্তায় লোকে সেই রথ দেখে ভালবেসে টাকাপয়সাও দিত শিশুদের ওই রথে।

আরও পড়ুন, পর্ণোগ্রাফি থেকে আইপিএলে বেটিং: নানান কেলেঙ্কারির সঙ্গে যুক্ত রাজ কুন্দ্রা

- Advertisement -

তবে, সেসব এখন শুধুই অতীত। এমনিতেই অনলাইন গেমে মজেছে নতুন প্রজন্ম। পাড়ায় বেরিয়ে রথ টানা নয়, বাড়িতে বসে চারজন দলবেঁধে যুদ্ধ জিততেই বেশি আমোদ পায় তারা। তার ওপর আবার করোনা কাঁটা। লকডাউনের জেরে সামর্থ্যও কমেছে নিম্ন-মধ্যবিত্ত মানুষদের। সবমিলিয়ে এই কারণগুলির জন্যই এবছর শ্রীরামপুরে কমেছে ছোটদের রথ বিক্রি।

অন্যান্যবার রথযাত্রার দিন শহরের মাহেশ থেকে শুরু করে বোসপাড়া বাজার হয়ে পাঁচুবাবুর বাজারের দিকে পা বাড়ালেই দেখা যেত, রাস্তার ধারে রঙ বেরঙের ছোট বড় রথ নিয়ে বসেছেন ব্যবসায়ীরা। এ বছর সেই সমস্ত অস্থায়ী রথের দোকান উধাও। মাহেশ জগন্নাথ মন্দিরের সামনে মাত্র দু’টি দোকানে রথের পসরা সাজিয়ে বসেছেন ব্যবসায়ীরা। অন্যান্যবারের তুলনায় তাঁদের বিক্রিও অনেকটাই কম।

আরও পড়ুন, কাজে আসবে না অলিম্পিকের ‘অ্যান্টি সেক্স বেড’, প্রমাণ দেখালেন ক্রীড়াবিদ

- Advertisement -

এ প্রসঙ্গে মাহেশের রথ ব্যবসায়ী বৈদ্যনাথ মাইতি বলেন, ‘অন্যান্যবারের তুলনায় তো বিক্রি কমই হচ্ছে। মাত্র নব্বই টাকা থেকে ২০০ টাকা দাম রেখেছি রথের। তাও সব বিক্রি হয়নি। লকডাউনের ফলে অনেকেই ছোটদের জন্য রথ কিনে দিতে পারছেন না। তবে, এমনও অনেকে আছেন যাঁরা এই পরিস্থিতিতেও ছোটদের রথ কিনে দিচ্ছেন। এই ধরনের মানুষদের জন্যই কিছু আয় হচ্ছে।’ একই বক্তব্য বেল্টিং বাজারের ব্যবসায়ী ভানু দেবনাথেরও। তাঁর কথায়, ‘ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা এখন মোবাইলেই বেশি ব্যস্ত৷ বাবা মায়েরও হেলদোল নেই। তাছাড়া, এখন এক শ্রেণীর মানুষের সামর্থ্য আছে ঠিকই তবে অধিকাংশেরই আর্থিক অবস্থা ভাল না। তাই বিক্রি কমছে আমাদের।’

সাধারণত, রথের আগে সেজে ওঠে গোটা শ্রীরামপুর। মেলার ব্যস্ততা শুরু হয় বেশ ক’দিন আগে থেকেই। পাশাপাশি জগন্নাথ মন্দির থেকে মাসির বাড়ি অবধি রাস্তাও পরিষ্কার করা হয়, গাছের অতিরিক্ত ডালপালা কেটে সাফ করে পৌরসভা৷ করোনার জেরে রথযাত্রা বন্ধ থাকায় উধাও সেই সমস্ত ব্যস্ততা, যেন মুষড়ে পড়েছে গোটা শহর।

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

রাজের হাত ধরেই পর্ণ ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছিলেন, চাঞ্চল্যকর দাবি পুনম পান্ডে ও শার্লিনের

খাস খবর ডেস্ক: পর্ণ ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে রাজ কুন্দ্রার যোগাযোগ নতুন কিছু নয়। বহুদিন ধরেই পর্ণোগ্রাফির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত রাজ। এমনকি, তাঁর তত্ত্বাবধানেই পর্ণোগ্রাফিতে হাতেখড়ি...

কপিলের শো থেকে বাদ পড়ায় মনের ব্যথা প্রকাশ ‘কর্মহীন’ সুমনার

মুম্বই: শিশুশিল্পী হিসেবে প্রথম অভিনয় জগতে পা রাখেন অভিনেত্রী সুমনা চক্রবর্তী। তিনি প্রথম স্ক্রিন শেয়ার করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা আমির খানের সঙ্গে। তখন সেই...

এবার থেকে টিকিট কেটেই ওঠা যাবে ট্রেনে, বড়সড় পরিবর্তন স্টাফ স্পেশ্যালে

খাসখবর ডেস্ক: যাত্রীদের জন্য এল এক নতুন সুখবর। বড়োসড়ো পরিবর্তন এলো স্টপ স্পেশালের নিয়মে। এবার থেকে টিকিট কেটে ওঠা যাবে ট্রেনে। অর্থাৎ এবার থেকে...

এক্সক্লুসিভ: প্রয়াণ দিবসে মহানায়কের নাতবৌ অভিনেত্রী দেবলীনা কুমারের ‘উত্তম-কথা’

পূর্বাশা দাস: তিনি শুধু নায়ক নন, তিনি মহানায়ক। আপামর বাঙালির কাছে উত্তম কুমার মানে আবেগ। মৃত্যুর এক চল্লিশ বছর পরেও সকলের মনের মনিকোঠায় রয়েছেন...

খবর এই মুহূর্তে

নতুন লুকে নতুন চরিত্রে ফিরছেন দিতিপ্রিয়া রায়

অর্পিতা দাস: 'রানী মা' ইমেজ থেকে বেরিয়ে নতুন লুকে নতুন চরিত্রে দর্শকদের সামনে আসতে চলেছেন অভিনেত্রী দিতিপ্রিয়া রায়। তবে বড় পর্দা বা ছোট পর্দায়...

চকোলেটের লোভ দেখিয়ে নাবালিকা ধর্ষণ, পলাতক অভিযুক্ত

ডোমজুড়: বয়স মাত্র সাত বছর, একরত্তি শরীর তার। সেই নাবালিকাও ছাড় পেল না। প্রতিবেশী সালাম শেখ চকোলেটের লোভ দেখিয়ে প্রথমে ঘরে বন্দি করে রাখল৷...

‘মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে’, আদালতে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন শুভেন্দু ঘনিষ্ঠের

কাঁথি: চাকরি দেওয়ার নাম করে প্রতারণা সহ একাধিক অভিযোগ ছিল তাঁর বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই কিছুদিন আগেই কলকাতায় গ্রেফতার করা হয়েছিল শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ...

‘আমার এই হরিনাম যাবে সেদিন সাথে গো’, শেষযাত্রায় হেলেদুলেই শ্মশানঘাটে গেলেন বৃদ্ধা

মালদহ: 'আমার এই হরিনাম যাবে সেদিন সাথে গো, আমি হেলেদুলে যাবো শ্মশানঘাটে', চটুল বাংলা গানে মাতলেন শ্মশানযাত্রীরা। নাহ, ভুল কিছু পড়েননি। শেষযাত্রাও যে এতটা আনন্দের...