বিধানসভায় বাজেট অধিবেশনের সময় পর্ন দেখতে ব্যস্ত BJP বিধায়ক, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

0
82

আগরতলা: জীবন একঘেয়ে হলে গেলে মানুষ একঘেয়েমি কাটাতে অনেক কিছুই করে। তবে বিজেপি বিধায়ক বিধানসভায় বসে যে কাজ করেছেন তা সত্যিই চাঞ্চল্যকর। বিধানসভায় বাজেট অধিবেশনের সময় বসে বসে বিরিক্ত হয়ে যাওয়ায় ফোন নিয়ে পর্ন দেখার অভিযোগ উঠেছে বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই বয়ে গিয়েছে নিন্দার ঝড়।

অভিযোগ উঠেছে রাজ্য বিধানসভার অধিবেশন চলাকালীন ত্রিপুরার বিজেপি বিধায়ককে  তাঁর মোবাইল ফোনে পর্ন  দেখছিলেন। সেই ঘটনার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যা ক্ষোভ ও সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। বিজেপি বিধায়ককে যাদব লাল নাথ নামে চিহ্নিত করা হয়েছে। তিনি উত্তর-পূর্ব রাজ্যের বাগবাসা আসনের প্রতিনিধিত্ব করেন।  ঘটনাটি ঘটেছিল যখন বিধানসভা রাজ্য বাজেট সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা চলছিল। ব্যপক গতিতে ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও। যে বিধায়ককে মানুষ এলাকার কাজের জন্য কয়েকদিন আগেই ভোট দিয়ে জিতিয়েছেন সেই ব্যক্তির কাণ্ডে সত্যিই সকলে হতবাক হয়ে গিয়েছেন।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: কর্ণাটকে কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়ার বিরুদ্ধে লড়তে পারেন BJP-র প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদিউরপ্পার ছেলে

ভিডিওটি,  বিজেপি বিধায়কের পিছনে বসে থাকা একজন ব্যক্তি করেছেন বলেই জানা গিয়েছে। ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, বিজেপি নেতা তাঁর ফোনে থাকা ভিডিও ক্লিপগুলি স্ক্রোল করছেন। স্পিকার এবং অন্যান্য বিধায়করা  যখন অধিবেশন নিয়ে জরুরি কথা বলছেন ঠিক সেই সময়ে  ইচ্ছাকৃতভাবে অশ্লীল ভিডিও ক্লিপ দেখছিলেন বলেই দাবি করা হয়েছে। বিজেপি বিধায়কের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে এবং তাকে তলব করেছে বলেই দলীয় সূত্র জানিয়েছে।  যদিও যাদব লাল নাথ  এখনও অভিযোগ বা ভিডিও দেখা নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া জানাননি। সূত্র জানিয়েছে, অধিবেশন শেষ হওয়ার পরপরই তিনি বিধানসভা চত্বর ত্যাগ করেন। এই ঘটনা নিয়েই ত্রিপুরার রাজনৈতিক মহলে হু হু করে উত্তাপ বাড়ছে।  তবে এই প্রথম নয় যে কোনও বিজেপি নেতা পাবলিক প্লেসে পর্ন দেখার জন্য সমালোচনার মুখে পড়েছেন। এর আগে ২০১২ সালে কর্ণাটকের তৎকালীন বিজেপি সরকারের দুই মন্ত্রী রাজ্য বিধানসভার অভ্যন্তরে নিজেদের ফোনে পর্ন ক্লিপ দেখার পরে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন।