টিকা স্বেচ্ছায়, বাধ্যতামূলক নয়, নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

0
30

নয়া দিল্লি: এখন থেকে কাউকে করোনার টিকা নিতে বাধ্য করা যাবে না। দেশ জুড়ে চতুর্থ করোনার ঢেউয়ের আশঙ্কার মাঝেই সোমবার এমনই রায় ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্ট। করোনার আবহ এখনও পর্যন্ত রয়েছে এবং আবারও বাড়ছে এই সংক্রমণ। যদিও বিগত দুদিনের তুলনায় সোমবার একটু কম সংক্রমণের হার। কিন্তু এখনও সংক্রমণের সংখ্যা তিন হাজারের উপরেই রয়েছে। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশ।

আরও পড়ুনঃ Leopard: ছাগলের টোপেই খাঁচা বন্দি চিতা, স্বস্তিতে এলাকাবাসী

সরকারের কোভিড টিকা নীতি নিয়ে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণ, টিকা নিয়ে সরকারের বর্তমান নীতি ‘অযৌক্তিক নয়’। তবে টিকা না নেওয়ার জেরে সাধারণ মানুষকে যে সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে তাও ঠিক নয়। সেক্ষেত্রে, কোনও ব্যক্তিকে করোনা টিকা নিতে বাধ্য করা যাবে না। আদালত জানিয়েছে, কিছু রাজ্য সরকার এবং কিছু সংস্থা টিকার ব্যাপারে এমন কিছু শর্ত আরোপ করেছে, যা টিকা না নেওয়া ব্যক্তিদের সমস্যায় ফেলছে। বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত থাকছেন। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ, বর্তমান পরিস্থিতিতে এই শর্ত প্রত্যাহার করা উচিত।

আরও পড়ুনঃ যৌন লালসার শিকার মূক ও বধির নাবালিকা, অভিযোগ প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে

করোনা থেকে বাঁচতে টিকাকরণ অন্যতম হাতিয়ার । কিন্তু,অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে প্রথম ডোজ নেওয়ার পর অনেকেই দ্বিতীয় ডোজ নিচ্ছেন না। এখনও পর্যন্ত দেশের ৬৮ শতাংশ মানুষ বর্তমানে সম্পূর্ণ টিকাপ্রাপ্ত। বহু ভারতীয় এখনও টিকা নেননি। আর টিকা না নেওয়া থাকলে অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে । বিদেশ ভ্রমণ হোক বা আন্তঃরাজ্য ভ্রমণ, সব জায়গায় ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক। অনেক জায়গায় সিনেমা হলে যেতে গেলেও দেখাতে হচ্ছে টিকাকরণের শংসাপত্র। এই পরিস্থিতিতে কোভিড টিকাকরণ নিয়ে তাদের পর্যবেক্ষণ কথা জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট ।