আরও শক্তিশালী দেশ, ভারতের থেকে Tejas যুদ্ধবিমান কিনতে চায় আমেরিকা অস্ট্রেলিয়া সহ ছয়টি দেশ

0
32
Tejas

নয়াদিল্লি: প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ভারতের আত্মনির্ভর হয়ে ওঠার কথা আগিয়ে ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আত্মনির্ভতাঁর ক্ষেত্রে ভারত যে অনেকেটাই এগিয়ে গিয়েছে সেই প্রমাণই এবার মিলছে আরও একবার। যে ভারত অন্য সামরিক শক্তিধর দেশের থেকে যুদ্ধবিমান এতদিন কিনেছে সেই ভারতের তৈরি  তেজস (Tejas) যুদ্ধবিমান কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া সহ ছয়টি দেশ।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক জানিয়েছে ভারতের দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি তেজস (Tejas) ফাইটার জেট কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে আর্জেন্টিনা, অস্ট্রেলিয়া, মিশর, আমেরিকা, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপিন্স। তেজস, হিন্দুস্তান অ্যারোনটিক্স লিমিটেড (HAL) দ্বারা নির্মিত, একটি একক-ইঞ্জিন মাল্টি-রোল ফাইটার এয়ারক্রাফ্ট যা উচ্চ-হুমকিপূর্ণ পরিবেশে কাজ করতে সক্ষম। সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মীত তেজস ‘লাইট কমব্যাট এয়ারক্রাফট’। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে, প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ভারতীয় বিমান বাহিনীর (IAF) জন্য ৮৩ টি তেজস ‘লাইট কমব্যাট এয়ারক্রাফট’ কিনতে HAL-এর সঙ্গে ৪৮ হাজার কোটি টাকার একটি চুক্তি সাক্ষরিত করেছে। কেন্দ্র জানিয়েছে ১৮টি যুদ্ধবিমান মালয়েশিয়াকে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তেজস নিয়ে লোকসভায় একটি প্রশ্নের উত্তরে, প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী অজয় ​​ভাট জানিয়েছেন, HAL ২০১১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে রয়্যাল মালয়েশিয়ান এয়ার ফোর্সের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের অনুরোধ (RFI) বা প্রাথমিক দরপত্রের জবাব দিয়েছে।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- শুক্রের পর শনিতেও মুখোমুখি হচ্ছেন মোদী-মমতা, পর পর তিন দিন সাক্ষাৎ নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে

জানা গিয়েছে, মালয়েশিয়া তাদের রাশিয়ান মিগ-২৯ ফাইটার জেটের পরিবর্তে ভারতের তৈরি তেজস  (Tejas) যুদ্ধ বিমান ক্রয় করছে। তবে মালয়েশিয়া কতগুলি বিমান সংগ্রহের দিকে নজর দিচ্ছে তা তাৎক্ষণিকভাবে স্পষ্ট নয়। গত মাসে, হিন্দুস্তান অ্যারোনটিক্স লিমিটেডের তৎকালীন চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক আর মাধবন জানিয়েছিলেন তেজাস বিমান মালয়েশিয়ার জন্য শীর্ষ পছন্দ হিসাবে সামনে এসেছে। ভারতের এই যুদ্ধবিমান বিক্রি যে অন্যান্য শক্তিধর দেশের সঙ্গে টেক্কা দেওয়ার ক্ষেত্রে আরও কয়েকধাপ এগিয়ে দিল।

https://play.google.com/store/apps/details?id=app.aartsspl.khaskhobor