রুদ্ধশ্বাস গুলির লড়াই, কাশ্মীরের পহেলগাঁওয়ে খতম হিজবুলের শীর্ষ কমান্ডার-সহ ৩ জঙ্গি

0
99

শ্রীনগর: জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদ দমনে কড়া হয়েছে সুরক্ষাবাহিনী। তেতেই মিলেছে সাফল্য। শুক্রবার সেনা জঙ্গির রুদ্ধশ্বাস গুলির লড়াইয়ে খতম হয়েছে তিন তিন সন্ত্রাসবাদী। তাদের মধ্যেই রয়েছে হিজবুল মুজাহিদিনের শীর্ষ কমান্ডার। জঙ্গিদের খতম করার পাশাপাশি ঘটনাস্থল বিপুল আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। অভিযান চলছে এখনও।

শুক্রবার দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগ জেলার পহেলগাঁওয়ের বাটকুট এলাকার জঙ্গলে সেনা জঙ্গির সংঘর্ষ শুরু হয়েছিল বলেই জানিয়েছেন কাশ্মীর পুলিশের আইজিপি বিজয় কুমার। সেই সংঘর্ষই তিন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যেই রয়েছে হিজবুল মুজাহিদিনের শীর্ষ কমান্ডার মহম্মদ আশরফ খান ওরফে আশরফ মৌলবী। পুলিশ জানিয়েছে আশরফ খানেন নাম মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গিদের তালিকায় শীর্ষ দশ জনের মধ্যে ছিল। টেংপাওয়া কোকারনাগের বাসিন্দা মোহাম্মদ আশরাফ খান ওরফে আশরাফ মোলভি ২০১৩ সালে হিজবুলে যোগ দিয়েছিল এবং শীঘ্রই উপত্যকায় মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি হয়ে ওঠেন। তিনি স্থানীয়দের দলে নিয়োগের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। শুধু তাই নয় সেনাবাহিনীর ও নাগরিকদের উপর হত্যার বেশকয়েকটি ঘটনায় তার যোগ ছিল বলেই জানিয়েছেন কাশ্মীর পুলিশের আইজিপি।

আরও পড়ুন- তাপপ্রবাহের হাত থেকে সুরক্ষিত রাখতে মন্দিরের হাতির জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করল কর্তৃপক্ষ

পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর 19RR-এর একটি যৌথ দল বাটকুট জঙ্গলে একটি অনুসন্ধান অভিযান শুরু করে।পুলিশের যৌথ দল সন্দেহজনক স্থানের দিকে তল্লাশি জোরদার করার পরেই লুকিয়ে থাকা জঙ্গিরা তল্লাশি দলের উপর গুলি চালায়,। তাতেই শুরু হয় এনকাউন্টার। উল্লেখ্য, উপত্যকায় জঙ্গিদের কোণঠাসা করতে একধিক পদক্ষেপ নিয়েছে সেনা। চলতি বছরের শুরু থেকেই পাকিস্তানের নিষিদ্ধ জঙ্গিগোষ্ঠী, লস্কর, হিজবুল, জইশের মত একাধিক গোষ্ঠীর শীর্ষ কমান্ডারকে খতম করেছে। এটাই উপত্যাকায় জঙ্গিদের চাপ বাড়িয়েছে।