উদ্ধার ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম স্বাধীনতা সংগ্রামে শহিদ ২৮২ জন সেনার কঙ্কাল

0
36

চণ্ডীগড়: অতীতে দেশের স্বাধীনতার জন্য ও বর্তমানে দেশের সুরক্ষায় ভারতীয় সেনাদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। এবার পাওয়া গেল ১৮৫৭ সালে দেশের প্রথম স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী ২৮২ জন ভারতীয় সেনার কঙ্কাল। পাঞ্জাবের অমৃতসরের কাছে মাটি খননের সময়েই এই কঙ্কালগুলি পাওয়া গিয়েছে বলেই জানিয়েছেন পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ জেএস সেহরাওয়াত।

স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী ভারতীয় সেনাদের কঙ্কাল উদ্ধার প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, “এই কঙ্কালগুলি ১৮৫৭ সালে ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম স্বাধীনতা সংগ্রামের সময় নিহত ২৮২ জন ভারতীয় সেনার। এগুলি পাঞ্জাবের অমৃতসরের কাছে আজনালায় একটি ধর্মীয় কাঠামোর নীচে একটি কূপ থেকে মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করা হয়েছে।” তিনি আরও জানিয়েছেন, “এই সেনারা শুয়োরের মাংস এবং গরুর মাংসের গ্রীসযুক্ত কার্তুজ ব্যবহারের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করছিল, একটি গবেষণায় এমনটাই পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। মুদ্রা, পদক, ডিএনএ অধ্যয়ন, মৌলিক বিশ্লেষণ, নৃতাত্ত্বিক, রেডিও-কার্বন ডেটিং, সব একই দিকে নির্দেশ করে।” প্রসঙ্গত,১৮৫৭ সালের বিদ্রোহকে কিছু ইতিহাসবিদরা স্বাধীনতার প্রথম যুদ্ধ বলে অভিহিত করেছেন। ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনীতে নিযুক্ত কিছু ভারতীয় সিপাহী ধর্মীয় বিশ্বাসের উদ্ধৃতি দিয়ে শুকরের মাংস এবং গরুর মাংসের গ্রিজযুক্ত কার্তুজ ব্যবহারের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছিলেন।

আরও পড়ুন- রাজ্যপালের সিদ্ধান্তকে মান্যতা দিয়ে যাবতীয় জট কাটিয়ে তৃণমূল বিধায়ক হিসাবে শপথ নিলেন বাবুল

১৮৫৭ এর ভারতীয় স্বাধীনতা যুদ্ধ ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির শাসনের বিরুদ্ধে ভারতে একটি বড় প্রতিরোধ ছিল। ১৮৫৭ সালের ১০ মে দিল্লির ৬৪ কিমি উত্তর-পূর্বে মিরাটের গ্যারিসন শহরে বিদ্রোহ শুরু হয়েছিল। এটি ছিল  ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির সেনাবাহিনীর সিপাহিদের বিরুদ্ধে একটি বিদ্রোহ। ক্রমশ গোটা উত্তর ও মধ্য ভারতে ছড়িয়ে পড়েছিল। যা দেশের ইতিহাসে সিপাহি বিদ্রোহ নামেই পরিচিত। এই বিদ্রোহ নির্মমভাবে দমন করা হয়েছিল। নির্বিচারে হত্যা করা হয়েছিল বহু নিরপরাধ নরনারী, শিশু ও বৃদ্ধদের। সেই সময়ের সেনাদের এবার কঙ্কাল মিলল।