বিদ্রোহীদের থেকে ডাক পেলেও গুয়াহাটি না যাওয়ার বড় কারণ জানালেন সঞ্জয় রাউত

0
28

মুম্বই: এই কয়েকদিনে মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক দৃশ্যপটের অভূতপূর্ব পরিবর্তন হয়েছে। রাজনৈতিক মহল ভেবেছে এক আর শেষ মুহূর্তে হয়েছে আরেক। তবে উদ্ধব ঠাকরের চরম সঙ্কটের মধ্যে যে মানুষটা সর্বদাই সঙ্গ দিয়ে সরকার টিকিতে রাখার লড়াই করেছেন তিনি হলেন শিবসেনার মুখপাত্র তথা দলের সাংসদ সঞ্জয় রাউত। তিনি এবার সামনে আনছেন একাধিক তথ্য। উদ্ধবের হাত ছেড়ে বিদ্রোহীদের দলে নাম ডাক পেয়েছিলেন তিনিও। কিন্তু কেন তিনি গুয়াহাটিতে একনাথের শিবিরে গেলেন না সেই কথাই এবার প্রকাশ্যে এনেছেন সঞ্জয় রাউত (Sanjay Raut)।

শিবসেনা বিধায়ক সঞ্জয় রাউত শনিবার বলেছিলেন যে তাকেও গুয়াহাটিতে বিধায়কদের বিদ্রোহী গোষ্ঠীতে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। তবে, তিনি প্রত্যাখ্যান করেছিলেন। কারণ হিসাবে রাউত বলেছেন, “আমি গুয়াহাটিতেও যেতে পারতাম কিন্তু আমি বালাসাহেবের একজন সৈনিক। আমি বালাসাহেব ঠাকরেকে অনুসরণ করেছি। যখন সত্য আপনার পক্ষে, ভয় কেন?” রাউত একনাথকে নিশানা করে বলেছেন, শিন্ডে শিবসেনার মুখ্যমন্ত্রী নন। উদ্ধব ঠাকরেও এই কথা স্পষ্ট করে দিয়েছেন। শিবসেনাকে দুর্বল করার জন্য এটি বিজেপির কৌশল বলেই দাবি করেছেন রাউত ও উদ্ধব। মুম্বইয়ে শিবসেনার ক্ষমতা কমাতেই একনাথকে মুখ্যমন্ত্রী করা হয়েছে।

আরও পড়ুন-  জেলে শ্লীলতাহানি করা হয়েছে, দাবি পাওয়াকে নিয়ে ফেসবুকে বিতর্কিত মন্তব্যকারী অভিনেত্রীর

কেবল একনাথকে নিয়ে নয় এদিন ইডির দফতরে হাজিরা দেওয়া নিয়েও মুখ খুলেছেন শিবসেনা সাংসদ । আর্থিক কেলেঙ্কারি মামলায় শুক্রবার  ইডির দফতরে হাজিরা দিয়েছেন রাউত (Sanjay Raut)। হাজিরা প্রসঙ্গে বলেছেন, “আমি আত্মবিশ্বাসের সাথে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) কাছে গিয়েছিলাম কারণ আমি জানি যে আমি কিছু ভুল করিনি। এবং তাই আমি ১০ ঘন্টা ভিতরে গিয়েছিলাম এবং ফিরে এসেছি।” সাংবাদিক সামনে রাউত বলেছেন, তিনি সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন এবং আবারও তলব করা হলে তিনি কেন্দ্রীয় সংস্থার সামনে হাজির হবেন।