বর্ণ-ভিত্তিক আদমশুমারির মাধ্যমেই কেবল “রাম রাজ্য” গড়া সম্ভব্য, মন্তব্য অখিলেশ যাদবের

0
49
Akhilesh Yadav

লখনউ: আগামী বছরেই উদ্বোধন হতে চলেছে রাম মন্দির। অযোধ্যার এই রাম মন্দির নিয়ে মানুষের মধ্যে আগ্রহের শেষ নেই। রাম রাজত্ব নিয়ে এখনও বহু চর্চা হয়। শুধু তাই নয় রাম এই নাম নিয়ে রাজনীতিও কম হয় না। এই সবের মধ্যেই উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব জানালেন কিভাবে রাম রাজ্য গড়ে তোলা সম্ভব।

এসদিন আরও একবার ক্ষমতাসীন বিজেপিকে খোঁচা দিয়ে সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব শনিবার বলেছেন “রাম রাজ্য” এর মহান ধারণার মূলে রয়েছে সমাজতন্ত্র এবং “রাম রাজ্য” গড়া সম্ভব শুধুমাত্র বর্ণ-ভিত্তিক আদমশুমারির মাধ্যমেই। সপা প্রধান বলেছেন, “রাম রাজ্য’ এবং ‘সমাজবাদ’ তখনই সম্ভব যদি একটি বর্ণভিত্তিক আদমশুমারি হয়। শুধুমাত্র বর্ণভিত্তিক আদমশুমারির মাধ্যমেই সবকা সাথ সবকা বিকাশ ঘটবে, এটি ভ্রাতৃত্ব আনবে, বৈষম্যের অবসান ঘটাবে এবং গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করবে।” দেশের সবচেয়ে জনবহুল রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী একটি জাতি-ভিত্তিক আদমশুমারির দাবি জানিয়েছেন। তিনি এটাও জানিয়েছেন যে প্রতিবেশী রাজ্য বিহার জাতি-ভিত্তিক আদমশুমারির দ্বিতীয় পর্যায়ে চলছে ঠিক তেমনি উত্তরপ্রদেশেও হওয়া উচিত।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: ৩৬ দিন পুলিশ হন্যে হয়ে খোঁজার পর অবশেষে গ্রেফতার খালিস্তানি নেতা Amritpal Singh

 কংগ্রেস এবং জেডি(ইউ) সহ বেশ কয়েকটি বিরোধী দল জাতি শুমারি দাবি করার এবং এসসি, এসটি এবং ওবিসি সম্প্রদায়ের জনসংখ্যা অনুসারে সংরক্ষণের দাবি করার কয়েকদিন পরে  অখিলেশ যাদবের এই বিবৃতিটি সামনে এসেছে। কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখে  বর্ণ শুমারি দাবি করেছেন। তিনি বলেছেন, অর্থবহ সামাজিক ন্যায়বিচার ও ক্ষমতায়ন কর্মসূচি এ ধরনের তথ্য  ছাড়া অসম্পূর্ণ। বিহারের মুখ্যমন্ত্রী এবং জেডিইউ) নেতা নীতীশ কুমারও কংগ্রেসের দাবিকে সমর্থন করেছেন।