Priyanka Gandhi Vadra:  “একজন শহীদের ছেলেকে আপনারা বলছেন মীরজাফর, তাঁর মাকে অপমান করছেন”

“আমি একজন গান্ধী, সাভারকার নই”

0
51
priyanka gandhi vadra on rahul gandhi

নয়া দিল্লিঃ ‘একজন শহীদের ছেলে’ রাহুল। তাঁকে প্রতিনিয়ত অপমান করছে বিজেপি। বললেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভদরা (Priyanka Gandhi Vadra)। এমনকি নেহেরু-গান্ধী পরিবারকেও টার্গেট করা হচ্ছে। যেহেতু রাহুলের (Rahul Gandhi) সাংসদ পদ খারিজের প্রতিবাদে দেশ জুড়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে কংগ্রেস। কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকাজুন খাড়গে ও কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভদরার নেতৃত্বে দিল্লির রাজঘাটের বাইরে সত্যাগ্রহ আন্দোলন প্রদর্শন করা হয়। রাজঘাটে কংগ্রেস আন্দোলন প্রদর্শন করতে চাইলেও অনুমতি দেয়নি দিল্লি পুলিশ।

আরও পড়ুন :Child Education : মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে শিক্ষার আলো দেখল ৯ বছরের শিশুকন্যা

- Advertisement -

“একজন শহীদের ছেলেকে আপনারা বলছেন মীরজাফর। আপনারা তাঁর মাকে অপমান করছেন। আপনাদের মুখ্যমন্ত্রী বলছেন, রাহুল গান্ধী জানেন না তাঁর মা কে? প্রতিদিন আমার পরিবারকে অপমান করা হচ্ছে। তখন কোন মামলা হচ্ছে না। ”এখানেই থেমে থাকেন নি প্রিয়াঙ্কা। এবার মোদীকে নিশানা করে তাঁর দাবি, “আপনাদের প্রধানমন্ত্রী ভরা সংসদে বলছেন, কেন এই পরিবার নেহেরু নাম ব্যবহার করেন না। তিনি সমগ্র কাশ্মীরি পণ্ডিতদের অপমান করছেন।“

আরও পড়ুন :Recruitment Scam: বিরোধীদের মুখে কুলুপ আঁটতে নয়া অস্ত্র শাসকদলের, উদয়নের পর এবার মুখ খুললেন শোভনদেব

এদিন মল্লিকাজুন খাড়গে বলেন, “নীরব মোদী কি ওবিসি? মেহুল চোকসি কি ওবিসি? ললিত মোদী কি ওবিসি? তারা পলাতক। রাহুল গান্ধী শুধুমাত্র কালো টাকা নিয়ে এই পলাতকদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। কংগ্রেস সারা দেশে এরকম শত শত বিক্ষোভ করবে। আমরা বাক স্বাধীনতা রক্ষার জন্য লড়াই করব। রাহুল গান্ধীর পাশে দাঁড়ানোর জন্য আমি সমস্ত বিরোধী দলকে ধন্যবাদ জানাই।” সত্যাগ্রহ আন্দোলনের মঞ্চে দলের শীর্ষ নেতা পি চিদাম্বরম, জয়রাম রমেশ, সালমান খুরশিদ, প্রমোদ তিওয়ারি, অজয় মাকেন, মুকুল ওয়াসনিক এবং অধীর রঞ্জন চৌধুরীকেও দেখা গেছে। দিল্লি পুলিশ এলাকায় কঠোর নজরদারি বজায় রেখেছে এবং রাজঘাটের চারপাশে বড় জমায়েত নিষিদ্ধ করেছে।

আরও পড়ুন :রাজীব তনয়ার সাংসদ পদ খারিজে দিকে দিকে প্রতিবাদ, রবিবার হাওড়ায় পুড়ল মোদীর কুশপুতুল

সাংসদ পদ খারিজ করার বিষয়টিকে কংগ্রেস রাহুল গান্ধীর (Rahul Gandhi) মতো নেতাকে নীরব করার জন্য একটি “ষড়যন্ত্র” বলে অভিহিত করেছে।  লন্ডনে তাঁর মন্তব্যের জন্য কেন তিনি ক্ষমা চাইছেন না। এই প্রসঙ্গে রাহুল গতকাল বলেন, “পরবর্তীতে আমি কী বক্তৃতা দেব, সেই বিষয়ে ভীত প্রধানমন্ত্রী। তাই আমাকে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে। আমি তার চোখে ভয় দেখেছি। তাই তারা চায় না আমি সংসদে কথা বলি। আমার নাম সাভারকার নয়। আমি একজন গান্ধী। আমি ক্ষমা চাইব না।” প্রসঙ্গত ।“সব মোদীরাই চোর”। এই মন্তব্যের জন্য সম্প্রতি সুরাটের একটি কোর্টে দোষীসাব্যস্ত হন রাহুল। দুবছর কারাদণ্ডের নির্দেশ দেয় কোর্ট। তারপরই জনপ্রতিনিধিত্ব আইন অনুযায়ী তাঁর সাংসদ পদ খারিজ করা হয়।