Udaipur murder: ISIS যোগ, জয়পুরে সন্ত্রাসবাদী হামলার পরিকল্পনা ছিল উদয়পুরের হত্যাকারীদের

0
67

জয়পুর: উদয়পুরের হিন্দু দর্জি খুনের ঘটনায় (Udaipur murder) তোলপাড় হচ্ছে গোটা দেশ। যত সময় যাচ্ছে ততই সামনে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। গ্রেফতার দুই খুনিকে জেরার করার পর তদন্তকারীরা যে তথ্য পাচ্ছে তা দেখে চমকে উঠছে দুঁদে কর্তারা। পাকিস্তানের পর এবার উদয়পুরের হত্যাকারীদের সঙ্গে মিলছে ISIS যোগ। সেই সঙ্গে এটাও জানা গিয়েছে যুবককে হত্যা ছাড়াও আরও বড় কি পরিকল্পনা ছিল তাদের।

তদন্ত করার পর পুলিশ জানিয়েছে যে অভিযুক্তরা ৩০ মার্চ জয়পুরে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ চালানোর ষড়যন্ত্রের অংশ ছিল। পাকিস্তান-ভিত্তিক দাওয়াত-ই-ইসলামির মাধ্যমে, তারা আইএসআইএসের দূরবর্তী স্লিপার সংগঠন আল-সুফার সঙ্গে যুক্ত ছিল। অভিযুক্ত দুইজনের একজন, মহম্মদ রিয়াজ “আত্তারি” উদয়পুরের আল-সুফার প্রধান। সে আইএসআইএস সন্ত্রাসী মুজিবের সাথেও যুক্ত ছিল বলেই পুলিশ জানতে পেরেছে। রিয়াজ এই নির্মম হত্যা মামলার দ্বিতীয় অভিযুক্ত মহম্মদ ঘৌসকে নিয়ে ঘৃণামূলক প্রচারণা চালায় বলে অভিযোগ রয়েছে। পুলিশের মতে, মহম্মদ ঘৌস ২০১৪ সালে যোধপুর হয়ে করাচি গিয়েছিল অন্য ৩০ জনের সঙ্গে ৪৫ দিনের জন্য দাওয়াত-ই-ইসলামিতে প্রশিক্ষণ নিতে। তারপর ভারতে ফিরে আসার পরে তাদের দলটি যুবকদের মগজ ধোলাই করত বলে অভিযোগ। পুলিশ জানিয়েছে যে অভিযুক্তরা পাকিস্তানের আটটি মোবাইল নম্বরের সাথে যোগাযোগ করেছিল।

আরও পড়ুন- ১৬ লক্ষেরও বেশি ভক্তের আগমন, মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে রথযাত্রার উদ্বোধন

জিজ্ঞাসাবাদের সময় অভিযুক্তরা জানিয়েছে যে যে তারা উদয়পুরে আরেক ব্যবসায়ীকে হত্যা করার পরিকল্পনা করেছিল। ইতিমধ্যে এই ঘটনার তদন্তভার জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (NIA)-এর হাতে দেওয়া হয়েছে। কানাইয়া লালের শিরচ্ছেদ মামলায় আরও পাঁচ সন্দেহভাজনকে হেফাজতে নিয়েছে এনআইএ। তদন্ত চলছে বলেই জানানো হয়েছে। এর ঘটনার পিছনে আরও কোনও মাথা রয়েছে কিনা সবটাই খতিয়ে দেখা হচ্ছে।