নির্বাচনে জয়ের জন্য ইতালি ডানপন্থী নেত্রী জর্জিয়া মেলোনিকে অভিনন্দন জানালেন নরেন্দ্র মোদী

0
34

নয়াদিল্লি: ইতালির প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন জর্জিয়া মেলোনি (Giorgia Meloni)। নির্বাচনে জয়লাভ করেছেন ডানপন্থী নেত্রী। ইতালিয় নির্বাচনে জয়ী হওয়ার জন্য জর্জিয়া মেলোনি এবং তাঁর দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

“ব্রাদার্স অব ইতালি” সকলের জন্য কাজ করবে বলে উল্লেখ করেছেন জর্জিয়া মেলোনি। এই বিপুল জয়ের পরেই শুভেচ্ছা জানিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী টুইট করেছেন। লিখেছেন, “আমরা আমাদের সম্পর্ক জোরদার করতে একসঙ্গে কাজ করার জন্য উন্মুখ।” মেলোনি, যিনি ‘ব্রাদার্স অব ইতালি দলের প্রধান’ এবং তিনি ডানপন্থী দলগুলির একটি জোটকে বিজয়ী করেছেন । শুধুতাই নয় তিনি দেশের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন। এমনকি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর দেশটির প্রথম উগ্র ডান-নেতৃত্বাধীন সরকার দ্বারা পরিচালিত হবে। জর্জিয়া মেলোনির দল প্রায় ২৫ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছে। জানা গিয়েছে সেনেটে ১১৪টি আসন জিততে চলেছে জর্জিয়ার নেতৃত্বাধীন জোট। ইতালিতে পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল রবিবার। মেলোনির প্রধানমন্ত্রী হওয়া শুধু সময়ের অপেক্ষা বলে মনে করছেন সকলেই।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প খারিজ, পুজোর মুখে আদালতে বড় ধাক্কা

তবে ইতালির সবচেয়ে কট্টরপন্থী দল ক্ষমতায় আসায় সিঁদুরে মেঘ দেখছেন বাংলাদেশিরা। নির্বাচনী ভাষণেই মেলোনি উল্লেখ করেছিলেন যে ক্ষমতায় এলে তাঁর প্রথম এবং প্রধান কাজ হবে অভিবাসন কমানো। বর্তমানে ইতালিতে বৈধভাবে বসবাস করছেন প্রায় ১ লক্ষের বেশি বাংলাদেশি। এছাড়াও অনেকেরই এই মুহূর্তে বসবাসের বৈধ কাগজপত্র প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সেক্ষেত্রে নাগরিকত্ব অথবা বসবাসের জন্য বৈধ কাগজ পেতে সমস্যা হবে বলে মনে করছেন বাংলাদেশিরা। উপরুন্তু কট্টর ডানপন্থী মনোভাবা সম্পন্ন দেশে মুসলিম বিদ্বেষের শিকার হতে পারেন বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন তাঁরা। এই ভয় সত্যি হয় নাকি পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকে সেটাই দেখার।