প্রধানমন্ত্রী মোদীর উপর হামলা চালাতে প্রশিক্ষণ শিবির তৈরি করেছিল PFI, চাঞ্চল্যকর তথ্য পেশ ইডির

0
28

নয়াদিল্লি: জঙ্গিদের অর্থ দিইয়ে সাহায্য করা সহ একাধিক সমাজবিরোধী কাজের জন্য মুসলিম মৌলবাদী সংগঠন ‘পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া’-র (PFI)-এর বিরুদ্ধে দেশজুড়ে চলছে অভিযান। বাংলা কেরল, কর্ণাটক সহ একাধিক রাজ্যে তল্লাশি চালিয়ে ১০০ জনের বেশি পিএফএআই কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই গ্রেফতারির পরেই এক পিএফএআই কর্মীর কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এসেছে। দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) উপরেই হামলার ছক কষা হয়েছিল বলেই জানিয়েছে ইডি।

জুলাই মাসে বিহারে সভার সময় প্রধানমন্ত্রীর উপর হামলা হতে পারত এই তথ্য জানানো হয়েছিল আগেই। তবে সেই হামলার পিছনে ছিল মুসলিম মৌলবাদী সংগঠন ‘পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া’-র (PFI)। তারাই মোদীর উপর হামলার ছক কষেছিল। এমনটাই বিস্ফোরক তথ্য জেরার সময় ইডিকে জানিয়েছে শফিক পায়েত নামের এক পিএফআই কর্মী যিনি গ্রেফতার হয়েছেন। ইডি জানিয়েছে পিএফআই পাটনায় ১২ জুলাইয়ের একটি সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে লক্ষ্যবস্তু করার ষড়যন্ত্র করেছিল। এছাড়াও, ইডি দাবি করেছে যে পিএফআই সন্ত্রাসী মডিউল এবং অন্যান্য হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। বৃহস্পতিবার কেরালায় গ্রেফতার হওয়া পিএফআই সদস্য শফিক পায়েথের বিরুদ্ধে ইডি রিমান্ড নোটে উল্লেখ করেছে পিএফআই প্রধানমন্ত্রীর পাটনা সফরের সময় আক্রমণ করার জন্য একটি প্রশিক্ষণ শিবিরেরও আয়োজন করেছিল। শুধু মোদীর উপর হামলাই নয় PFI সন্ত্রাসী মডিউল,উত্তরপ্রদেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং ব্যক্তিদের উপর হামলার জন্য প্রাণঘাতী অস্ত্র এবং বিস্ফোরক জোগাড়ের সঙ্গে জড়িত ছিল। ইডি আরও জানিয়েছে ঘটনার তদন্তে বেশ কিছু নথি হাতে পেয়েছে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা। সেইসনব নথি থেকে জানা গিয়েছে যে দেশের বড়বড় নেতাদের হত্যার ছক কষছিল পি এফ আই (PFI)।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- প্রধানমন্ত্রীর কি করা উচিত, মোদীকে পরামর্শ দেশের প্রাক্তন উপ-রাষ্ট্রপতি Venkaiah Naidu-র

এখানেই শেষ নয় যুবকদের ISIS, লস্কর-ই-তইবা, আল কায়দার মত জঙ্গি গোষ্ঠীর সঙ্গে যুক্ত হওয়ার উস্কানি দিত পিএফআই। শনিবার এমনটাই জানিয়েছে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (NIA)। দেশে ইসলামিক শাসন জারি করার জন্য যুবকদের বিশ্বের কুখ্যাত এইসকল জঙ্গি গোষ্ঠীর সঙ্গে যুক্ত হতে বলত ভারতের এই উগ্র মৌলবাদী সংস্থা। শুধু তাই নয়, ভারতের মাটিতে বসেই সন্ত্রাসবাদের ছক কষত তাঁরা বলে জানিয়েছে NIA। এখনও পর্যন্ত সমগ্র দেশের প্রায় ৯৩ টি জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালিয়েছে NIA এবং ইডি। পশ্চিমবঙ্গ সহ কেরল, তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান, দিল্লি্‌ অসম, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, গোয়া, বিহার ও মণিপুরের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে এখনও পর্যন্ত ১০৬ জন পি এফ আই নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই তল্লাশি অভিযান জারি রয়েছে।