ঠিক কিভাবে উদয়পুরের খুনিদের শিক্ষা দেওয়া উচিত, জানালেন প্রাক্তন মন্ত্রী

0
30

বেঙ্গালুরু: রাজস্থানের উদয়পুরে মঙ্গলবার রাতে হত্যাকাণ্ডের (Udaipur Murder Case) পর থেকেই উত্তাল দেশ। অনেকেই বলছেন পয়গম্বর বিতর্কের রেশ কতটা প্রভাব ফেলেছে দেশে এটাই সবথেকে বড় প্রমাণ। যুবককে মুণ্ডচ্ছেদ করে পৈশাচিক ভাবে খুনের ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে তা দেখে আঁতকে উঠেছে গোটা দেশ। অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সরব হচ্ছেন একে একে সকলেই। উদয়পুরের হত্যাকাণ্ড নিয়ে মুখ খুলেছেন কর্ণাটকের প্রাক্তন মন্ত্রী। জানিয়েছেন তার মতে অভিযুক্তদের কিভাবে শাস্তি দেওয়া উচিত।

কর্ণাটকের প্রাক্তন মন্ত্রী কে এস ঈশ্বরাপ্পা উদয়পুরে দর্জিকে খুনের ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেছিলেন, “গণতন্ত্রে এই খুনিদের খুনের মাধ্যমে শিক্ষা দেওয়া উচিত নয়তো তাদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া উচিত।” মঙ্গলবার উদয়পুরে প্রকাশ্য দিবালোকে কানহাইয়া লাল নামের ওই যুবককে খুন করার পর দুই অভিযুক্ত দুই আলাদা ভিডিও শেয়ার করে। যেখানে দুজনকে হত্যার কথা স্বীকার করতে এবং পয়গম্বর বিতর্ক নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খুনের হুমকি দিতে শোনা যায়। প্রধানমন্ত্রীকে হুমকি দেওয়ার ভিডিওটির প্রতিক্রিয়া জানিয়ে তিনি বলেছেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হত্যার হুমকি দেওয়ার দুঃসাহসী মন্তব্য এবং এখনও এই দেশে বেঁচে থাকা কোনও জাতীয়তাবাদী সহ্য করবে না।” তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী হয়তো বলতে পারেন দেশে শান্তি রক্ষা করতে হবে, কিন্তু তার মানে খুনিদের রক্ষা করা নয়।’

- Advertisement -

আরও পড়ুন- Udaipur Murder: রাজস্থান জুড়ে নিষিদ্ধ জমায়েত, বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাজস্থানের উদয়পুরে দুই ব্যক্তি একজন হিন্দু দর্জিকে খুন করে (Udaipur Murder Case)  এবং অনলাইনে ভিডিও পোস্ট করেছে। যাতে তারা বলেছে যে তারা ইসলামের অবমাননার প্রতিশোধ নিচ্ছে। কারণ মৃত যুবক বিজেপির বরখাস্ত হওয়া মুখপাত্র নূপুর শর্মার সমর্থনে সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট করেছিলেন। খুনিরা আরও জানিয়েছে ভিডিওর মাধ্যমে যে তারা নবীকে নিয়ে এই অসম্মান মেনে নেবে না। সেই কারণেই শিক্ষা দিতেই এটা করা হয়েছে। বর্তমানে দেশে এখন চচার বিষয় এই রাজস্থানের ঘটনা। যদিও মঙ্গলবার রাতেই রাজসামন্দ জেলার ভীম এলাকায় দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সব মহল থেকেই এই হত্যাকাণ্ডের জন্য উপযুক্ত শাস্তির দাবি জোরাল হচ্ছে।