Maharashtra political crisis: রাজ্যের নতুন মুখ্যমন্ত্রী ও উপ-মুখ্যমন্ত্রী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে শপথ নিতে পারেন

0
31

মুম্বই: যাবতীয় জল্পনার ইতি টেনে বুধবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তবে সৈকতনগরীর রাজনৈতিক অবস্থা (Maharashtra political crisis) নিয়ে চর্চা কিন্তু থামেনি। যেটা বর্তমানে আলচ্য তা হল উদ্ধবের পর কে হবেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী। নাম আন্দাজ করলেও যতক্ষণ ঘোষণা না হয় ততক্ষণ কৌতূহল রয়েই গিয়েছে। তবে সূত্রের খবর আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রাজ্যে কেবল মুখ্যমন্ত্রী এবং উপ-মুখ্যমন্ত্রী শপথ নেবেন।

অনেকেই বলছেন সমস্ত কিছু ঠিক থাকলে বৃহস্পতিবারেই ফের মহারাষ্ট্রের মসনদে বসতে চলেছে বিজেপি। খুব বড় ধরণের কোনও রদবদল না হলে এই নয়া সরকারের মুখ্যমন্ত্রী হবেন দেবেন্দ্র ফড়নবীস এবং উপ মুখ্যমন্ত্রী হবেন কুরলার বিদ্রোহী শিবসেনা বিধায়ক একনাথ শিন্ডে। তারাই সরকার গঠনের স্বার্থে শপথ নিতে পারেন। এমনটাই সূত্ররে খবর। আরও জানা গিয়েছে, শিন্ডে গোষ্ঠীর সমস্ত বিদ্রোহী সেনা বিধায়ক এবং নির্দলরা শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। প্রায় ১২ জন সেনা বিদ্রোহী বিধায়কদের বিজেপির নতুন সরকারে মন্ত্রী পদ পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই সমস্ত কিছু নিয়েই সরগম মহারাষ্ট্রের রাজনীতি।

আরও পড়ুন- Udaipur murder: ISIS যোগ, জয়পুরে সন্ত্রাসবাদী হামলার পরিকল্পনা ছিল উদয়পুরের হত্যাকারীদের

উল্লেখ্য, বুধবার ইস্তফা দেওয়ার সময় আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন উদ্ধব ঠাকরে। ইস্তফা দেওয়ার সময় ফেসবুক লাইভে উদ্ধব ঠাকরে বলেন, “যারা দূরে ছিলেন তারা কাছে এসেছে, আর যারা কাছে ছিলেন তারা দূরে চলে গিয়েছেন। এনসিপি ও কংগ্রেসের সহকর্মীদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। দেড় বছর ধরে বিধান পরিষদের যে তালিকা আটকে আছে, তার অনুমোদন দিন রাজ্যপাল। শিবসেনা কর্মীদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে, আমি শিবসেনা কর্মীদের শান্ত থাকতে আবেদন করছি। কার কাছে কত সংখ্যাগরিষ্ঠতা তা নিয়ে আমি চিন্তিত নই। আমি যা করেছি বা করছি তা মহারাষ্ট্রের জন্য, শিব সৈনিকদের জন্য এবং হিন্দুত্বের জন্য”। আর তারপরেই ঠাকরের ইস্তফা নিয়ে শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত টুইট করেন। হার না মানার কথা জানিয়ে বলেন, ““এটি শিবসেনার দুর্দান্ত বিজয়ের সূচনা। এটি শিবসেনার দুর্দান্ত বিজয়ের সূচনা। আমরা মার খাব, আমরা জেলে যাব, কিন্তু বালাসাহেবের শিবসেনাকে জাগিয়ে রাখব”।