৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পর জম্মু-কাশ্মীর সফরে ২০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

0
35

শ্রীনগর: জম্মু-কাশ্মীর থেকে ২০১৯ সালে ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পর এই প্রথম সেখানে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। জাতীয় পঞ্চায়েতি রাজ দিবসে উপত্যকায় গিয়ে করেছেন একাধিক ঘোষণা। সেই সঙ্গেই জম্মু ও কাশ্মীরে তাঁর প্রথম বড় সফরে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ২০ হাজার কোটি টাকার একাধিক উন্নয়ন উদ্যোগের উদ্বোধন ও ভিত্তি স্থাপন করেছেন।

‘পঞ্চায়েতি রাজ দিবসে’ সারা দেশে পঞ্চায়েতগুলির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময়ে মোদী বলেছেন, “আজ এখানে সংযোগ এবং বিদ্যুতের সঙ্গে সম্পর্কিত ২০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীরে উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত করার জন্য, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে অনেক উন্নয়ন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।” সাম্বা জেলার পল্লী পঞ্চায়েতে উপস্থিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন এই উদ্যোগগুলি জম্মু ও কাশ্মীরের যুবকদের জন্য বিশাল কর্মসংস্থানের সুযোগ দেবে। কাশ্মীর সফরে প্রধানমন্ত্রী রাতলে ও কোয়ার জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর করেছেন। প্রায় ৫৩০০ কোটি টাকা ব্যয়ে কিশতওয়ার জেলার চেনাব নদীতে ৮৫০ মেগাওয়াট রাটল জলবিদ্যুৎ প্রকল্পটি নির্মিত হবে বলেই জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে ৫৪০ মেগাওয়াট কোয়ার জলবিদ্যুৎ প্রকল্পটি কিশতওয়ার জেলার চেনাব নদীর উপর ৪৫০০ কোটি টাকারও বেশি ব্যয়ে নির্মিত হবে। প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন দুটি প্রকল্পই এই অঞ্চলের বিদ্যুৎ চাহিদা মেটাতে সাহায্য করবে।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- ‘মহারাষ্ট্রের মানুষ অপরাধীদের ক্ষমা করবে না’, বিজেপি নেতাকে পাল্টা আক্রমণ শিবসেনার

নমো বলেছেন, “সাম্বা জেলার পল্লীতে একটি ৫০০ কিলোওয়াট সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গে এটি কার্বন নিরপেক্ষ হওয়ার জন্য দেশের প্রথম পঞ্চায়েত হওয়ার দিকে এগোচ্ছে, ‘সবার প্রার্থনা’ কী করতে পারে তা পল্লীর মানুষ দেখিয়েছেন।” অন্যদিকে ৩১০০ কোটি টাকারও বেশি ব্যয়ে নির্মিত বানিহাল কাজীগুন্ড রোড টানেলের উদ্বোধনও করেছেন প্রধানমন্ত্রী। জানানো হয়েছে ৮.৪৫ কিলোমিটার দীর্ঘ টানেলটি বানিহাল এবং কাজিগুন্ডের মধ্যের রাস্তার দূরত্ব ১৬ কিলোমিটার কমিয়ে প্রায় দেড় ঘন্টা যাত্রার সময় কমিয়ে দেবে। এদিন প্রধানমন্ত্রী দিল্লি-অমৃতসর-কাটরা এক্সপ্রেসওয়ের তিনটি সড়ক প্যাকেজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন, যা ৭৫০০ কোটি টাকার বেশি ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী INTACH ফটো গ্যালারিও পরিদর্শন করেছেন যা এই অঞ্চলের গ্রামীণ ঐতিহ্যকে চিত্রিত করে এবং নোকিয়া স্মার্টপুর, একটি গ্রামীণ উদ্যোক্তা-ভিত্তিক মডেল যা ভারতে আদর্শ স্মার্ট গ্রাম তৈরির জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ছুটির দিনে কাশ্মীর বাসীকে এক ঝুলি উপহার দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।