ব্যপার কি, ভারতের বিদেশনীতির ভূয়সী প্রশংসা প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের

0
58

ইসলামাবাদ: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর পদ হারানোর পর থেকেই একেবারেই অনু ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে ইমরান খানকে। যে ব্যক্তি কারণে অকারণে ভারতে দিকে ছুড়ে দিয়েছেন আক্রমণের তীর সেই তাঁর মুখেই শোনা যাচ্ছে ভারতের প্রশংসা। যে বিষয় দেখে অবাক হয়েছেন রাজনৈতিক মহল। শনিবারে এক ধাক্কায় ভারতে অনেকটা পেট্রল, ডিজেল এবং রান্নার গ্যাসের দাম কমার পরেই ফের ভারতের গুণগান করতে শোনা গেল পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে। “মার্কিন চাপে” নত না করা এবং রাশিয়ার কাছ থেকে ছাড়ের তেল কেনার জন্য ভারতের প্রশংসা করেছেন তিনি।

শনিবার পেট্রলে লিটার প্রতি ৮ টাকা, ডিজেলে ৬ টাকা শুল্ক কমিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ একইভাবে উজ্জ্বলা গ্যাস সিলিন্ডারের ক্ষেত্রে ২০০ টাকা করে ভর্তুকির সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র৷ শনিবার সন্ধ্যায় এক টুইটে এই তথ্য সামনে এনেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। তারপরেই ভারতের প্রশংসা করতে শোনা গেল ইমরান খানকে। তবে শুধু ভারতের গুণ গেয়েছেন এমনটা নয় সেই সঙ্গেই পাকিস্তানের বর্তমান শাসক দল মুসলিম লীগের নিন্দা করেছেন। ‘সূচপিনের মত অর্থনীতি নিয়ে মুণ্ডুহীন মুরগির মত ছুটে চলেছে এই সরকার’ এমনটাই মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন শাসক।

আরও পড়ুন- উল্টে গিয়েছে ভোজ্য তেলের গাড়ি, অগ্নিমূল্যের বাজারে চলল দেদার লুট

ইমরান খান ভারতে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম কমানোর একটি তথ্য রিটুইট করে লিখেছেন, “কোয়াডের অংশ হওয়া সত্ত্বেও, ভারত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চাপে দমে যায়নি উল্টে জনসাধারণকে স্বস্তি দেওয়ার জন্য ছাড় দিয়ে রাশিয়ান তেল কিনেছিল। আমাদের সরকার স্বাধীন বিদেশ নীতির সাহায্যে এটি অর্জনের জন্য কাজ করছিল।” সেই সঙ্গে শাহবাজ শরীফের সরকারকে “মীর জাফর এবং মীর সাদিকের” সঙ্গে তুলনা করেছেন। তোপ দেবে বলেছেন পাকিস্তানের বর্তমান শাসকশোক বৈদেশিক শক্তির কাছে মাথা নত করছে।