জেলে শ্লীলতাহানি করা হয়েছে, দাবি পাওয়াকে নিয়ে ফেসবুকে বিতর্কিত মন্তব্যকারী অভিনেত্রীর

0
38

নয়াদিল্লি: এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারকে নিয়ে ‘অশালীন’ পোস্ট করে মারাঠি অভিনেত্রী কেতকী চিটালে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। গ্রেফতার করা হয়েছিল তাঁকে। সেই অভিনেত্রীই এবার পাওয়ারকে নিশানা করেছেন। সেই সঙ্গেই জেলে থাকার সময়ের কথা উল্লেখ করে এনেছেন বিস্ফোরক অভিযোগ। শুক্রবার দাবি করেছেন থানে সংলগ্ন জেলার একটি কারাগারে বন্দী থাকাকালীন তাঁর শ্লীলতাহানি করা হয়েছিল।

পাওয়ারকে নিয়ে বিতর্কিত সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের জন্য অভিনেত্রীকে গ্রেফতার করে প্রায় এক মাস জেলে রাখা হয়েছিল। গত মাসের শেষের দিকে অভিনেত্রী জামিন পেয়েছিলেন। জেল থেকে বেরিয়েই তিনি সংবাদ মাধ্যমের সামনে তাঁর অভিযোগে বলেছেন, “জেলে থাকাকালীন আমার শ্লীলতাহানি হয়েছিল। আমাকে মারধর করা হয় এবং আমার দিকে কিছু কালো বিষাক্ত কালি ছুড়ে দেওয়া হয়।” তবে শুধু জেলে থাকার সময়ের কথাই বলেননি। তাঁর গ্রেফতারি নিয়েই ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। দাবি করেছেন তিনি এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারকে নিয়ে কোনও পোস্ট করেননি কিন্তু তা সত্বেও তাঁকে মিথ্যা অভিযোগে গেফতার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন- লক্ষ্য লোকসভা নির্বাচন, আজ থেকে জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকে বিজেপি 

মারাঠি অভিনেত্রী পাওয়ারকে কটাক্ষ করে বলেছেন, “ফেসবুক পোস্টে আমি কাউকে অপমান করিনি। বিষয়টা অনেকেই নিজেদের মতো করে ভেবে নিয়েছেন। তবে কি তাঁরা মেনে নিচ্ছেন যে শরদ পওয়ার এমনই মানুষ? যদি তিনি (পওয়ার) ওই ধরনের মানুষ নন তাহলে আমার বিরুদ্ধে এফআইআর করার অর্থ কী।” কেতকী চিটালে আরও বলেছেন, “আমাকে বেআইনিভাবে গ্রেফতার করা হয়েছিল, বিনা পরোয়ানায়। আমি কিছু ভুল করিনি, তারপরও আমার সাথে এমন আচরণ করা হয়েছিল।” প্রসঙ্গত, ‘নরক আপনার অপেক্ষায়’, ‘আপনি ব্রাহ্মণদের ঘৃণা করেন’ এই দুই লেখার জন্য গত ১৪ মে তাঁকে মহারাষ্ট্র পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে ২২ টি মামালা রয়েছে। যার মধ্যে তিনি একটি থেকে মুক্তি পেয়েছেন। অভিনেত্রীর দাবি তিনি পাওয়ারকে নিশানা করে কিছুই করেননি।