অমরনাথ যাত্রায় NDRF-র দলে পাহাড়ি উদ্ধারকারী হিসাবে থাকছেন ৮ মহিলা

0
17

শ্রীনগর: আর মাত্র কয়েকটা দিন পরেই শুরু হচ্ছে বার্ষিক অমরনাথ যাত্রা। করোনা আতঙ্ক কাটিয়ে দীর্ঘ দু বছর পর শুরু হতে চলছে এই তীর্থযাত্রা। পুণ্যার্থীদের সমস্ত রকম সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সমগ্র জম্মু-কাশ্মীরকে মুড়িয়ে ফেলা হয়েছে নিরাপত্তারর চাদরে। বিশেষ ব্যবস্থার মধ্যে সবথেকে নজরকাড়া বিষয় হল পাহাড়ি উদ্ধারকারী হিসাবে NDRF-র দলে থাকছেন আটজন মহিলা। যে ঘটনা আরও একবার প্রমাণ করে দিয়েছে সংসার থেকে দেশ তথা মানুষে সুরক্ষা কোনও কাজেই তাঁরা কম নয়।

অমরনাথ যাত্রার জোড়া ট্রেক রুট জুড়ে বিভিন্ন স্থানে মোতায়েন করা ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স ফোর্সের (NDRF) দলে আটজন মহিলা কর্মী পর্বত থেকে উদ্ধারকারী হিসাবে যোগ দেবেন। এনডিআরএফ-এর আটটি দল উভয় রুটের বিভিন্ন পয়েন্টে মোতায়েন করা হবে। তীর্থযাত্রীদের নিরাপত্তা ও সুবিধা নিশ্চিত করতে এই কর্মীদের পাহাড় উদ্ধার অভিযানে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। NDRF-এর ডেপুটি কমান্ড্যান্ট আর কে শর্মা বলেন, “মানবসৃষ্ট বা প্রাকৃতিক দুর্ঘটনা, যেমন আকস্মিক বন্যা, মেঘ ভাঙা বৃষ্টি, তুষারপাত এবং ভূমিধসের মতো দুর্যোগে উদ্ধার অভিযানের জন্য এনডিআরএফ দলকে এখানে মোতায়েন করা হয়েছে। আমাদের আটটি দল বিভিন্ন স্থানে মোতায়েন করা হবে। উভয় রুটে পয়েন্ট এবং তারা প্রতিটি প্রতিকূল পরিস্থিতিতে ভক্তদের সাহায্য করবে।”

- Advertisement -

আরও পড়ুন- সরকার বাঁচাতে মরিয়া মুখ্যমন্ত্রী, আজ জরুরি বৈঠকে বসছেন উদ্ধব ঠাকরের

৪৩ দিনের যাত্রাটি দুটি পাহাড়ি রুট থেকে শুরু হওয়ার কথা। একটি হল দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগের পাহালগামের নুনওয়ান থেকে গুহা মন্দির পর্যন্ত ৪৮ কিলোমিটার পথ এবং দ্বিতীয়টি হল মধ্য কাশ্মীরের গান্ডারবাল জেলার বালতাল থেকে ১৪ কিলোমিটার ছোট পথ। দুটি পথই খাড়াই হওয়ার কারণে সমস্যা রয়েছে পদে পদে। যেকোনো পাহাড়ি বিপদ থেকে রক্ষা করার জন্যই এবারে থাকছেন ৮ জন মহিলা সুরক্ষা কর্মী। তাঁদের এই যোগদান প্রশংসনীয় বলেই বলছেন অনেকে। দুই বছরের ব্যবধান কাটিয়ে আগামী ৩০ জুন থেকে অমরনাথ যাত্রা শুরু হবে। শেষ হবে রাখী পূর্ণিমার দিন। তীর্থযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনের পক্ষ থেকে সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে। সন্ত্রাসবাদী হামলা এড়ানোর জন্য বিশেষ গ্যাজেট ব্যবহার করা হচ্ছে বলেই জানানো হয়েছে।