ICU-তে দিল্লির প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী, ৬ সপ্তাহের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিল শীর্ষ আদালত

0
29

নয়াদিল্লি: গুরুতর অসুস্থ হওয়ার কারণে কয়েকদিন আগেই হাপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল দিল্লির প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনকে। তারপর গতকাল বৃহস্পতিবার  ফের তাঁকে আইসিইউতে ভর্তি  করা হয়েছে।   শারীরিক অবস্থার কথা বিবেচনা করেই সুপ্রিম কোর্ট আজ আপ নেতার চিকিৎসার জন্য ৬ সপ্তাহের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেছে।

 বৃহস্পতিবার তিহার জেলের বাথরুমে পড়ে যাওয়ার পরে সত্যেন্দ্র জৈন দিল্লির লোক নায়ক জয় প্রকাশ নারায়ণ (এলএনজেপি) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।  এক সপ্তাহের মধ্যে এই দ্বিতীয়বার জৈনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়েছিল। সোমবার জেল আধিকারিকদের মতে, কারাগারের বাথরুমে পড়ে যাওয়ার আগে তাকে মেরুদণ্ডের আঘাতের জন্য সাফদরজং হাসপাতালে পরীক্ষা করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার তাঁকে আইসিইউতে ভর্তি করতে হয়। আজ রায়ে আদালত জানিয়েছে, “আমরা চিকিৎসার ভিত্তিতে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন বিবেচনা করতে আগ্রহী এবং তাকে  তাঁর পছন্দের বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা  পরিষেবা নেওয়ার জন্য  ৬ সপ্তাহের জামিনের অনুমতি দিতে চাই। বিচার আদালত কর্তৃক আরোপিত শর্তের ভিত্তিতে তাকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। কোনো সাক্ষীকে প্রভাবিত করবেন না বা দেখা করবেন না।”

- Advertisement -

আরও পড়ুন: খারাপ ভাষা প্রয়োগ করলে “মেরে হাত পা গুঁড়িয়ে দিন”, নিদান তৃণমূলের দাপুটে নেতা আরাবুল ইসলামের

গত বছরের মে মাসে অর্থ পাচারের মামলায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর থেকে আপকে নেতা তিহার জেলে রয়েছেন। একজন সিনিয়র জেল কর্মকর্তা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে বিচারাধীন বন্দি সত্যেন্দ্র জৈন কেন্দ্রীয় কারাগার-৭ নম্বর হাসপাতালের এমআই রুমের বাথরুমে পড়ে যান ।  সত্যেন্দ্র  জৈন কেজরিওয়ালের মন্ত্রিসভার একজন বিশিষ্ট সদস্য ছিলেন এবং স্বাস্থ্য, গৃহ এবং নগর উন্নয়ন সহ বেশ কয়েকটি পোর্টফোলিও অধিষ্ঠিত ছিলেন। জেলে থাকা অবস্থায় চলতি বছরের জানুয়ারিতে তিনি তাঁর মন্ত্রীপদ থেকে পদত্যাগ করেন।  তবে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এবং বলেছেন  তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।