বড় সাফল্য, চলতি বছরে এখনও পর্যন্ত কাশ্মীরে খতম হয়েছে ৬২ জন সন্ত্রাসবাদী

0
19
Hizbul Terrorist

শ্রীনগর: সন্ত্রাসবাদ দমনে আরও কড়া হয়েছে মোদী সরকার। চলতি বছরের শুরু থেকেই জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদ দমনে বড় সাফল্য পেয়েছে সুরক্ষা বাহিনী। সেনা, পুলিশের যৌথ বাহিনীর কড়া নজরদারি ও অভিযানের কারণে নিকেশ করা গিয়েছে বহু সন্ত্রাসবাদীকে। যাদের মধ্যে রয়েছে বেশ কয়েকজন শীর্ষ কমান্ডার। জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে চলতি বছরের প্রথম দিন থেকে এখনও পর্যন্ত কতজন জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ২০২২ সালের জানুয়ারি থেকে এখনও পর্যন্ত সুরক্ষাবাহিনী ৬২ জন সন্ত্রাসবাদী নিহত হয়েছে, যার মধ্যে ৪৭ জন স্থানীয় এবং ১৫ জন বিদেশী সন্ত্রাসবাদী ছিল। কাশ্মীরের পুলিশের ইন্সপেক্টর-জেনারেল বিজয় কুমার বিস্তারিত তথ্যা প্রকাশ করে জানিয়েছেন এই বছর এখনও পর্যন্ত নিহতদের মধ্যে ৩৯ জন লস্কর-ই-তৈবা (LeT) জঙ্গিগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত। কাশ্মীর জোন পুলিশও এই নিয়ে একটি টুইট করে যেখানে উল্লেখ কর হয়েছে, “বছর এখনও পর্যন্ত এনকাউন্টারে মোট সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে ৬২ আউটফিট অনুসারে লস্করের (LeT) ৩৯ জন জইশের (JeM) ১৫ জন, হিজবুলের (HM) ৬ জন, আল-বদরের (Al-Badr) ২ জন জঙ্গি খতম হয়েছে।”

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সাম্বা জেলার পল্লী পঞ্চায়েত এলাকা পরিদর্শন করার কয়েকদিন পরেই এই তথ্য পুলিশ সামনে এনেছে। তিনি বেশ কয়েকটি উন্নয়নমূলক প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখা ভাল, সুরক্ষা বাহিনী জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জম্মু-সফরের সময়েই জঙ্গিদের বড় হামালা করার পরিকল্পনা ছিল। মোদীর সফররে দিনের সভাস্থল থেকে কয়েক কিমি দূরে ঘটেছিল বিস্ফোরণও। তাতে আইইডি নমুনাও মিলেছে বলে জানানো হয়েছে। যদিও জঙ্গিদের হামলার পরিকল্পনা ভেস্তে যায় এবং পর পর সেনাবাহিনী বেশ কয়েকজন জঙ্গিকে খতম করে। সেই ধারা আজ বৃহস্পতিবার বজায় ছিল। বৃহস্পতিবার ভোরে দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় একটি অভিযানে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিযায়ী শ্রমিকদের উপর হামালার উপর হামলায় জড়িত দুই আল-বদর জঙ্গিকে খতম করেছে।