পেট্রোলের সেঞ্চুরিতে রাজ্যও পাচ্ছে ২৫ টাকা

0
146

খাস খবর ডেস্ক: সম্প্রতি রাজ্যের বেশ কিছু অঞ্চলে সেঞ্চুরি পেরিয়েছে পেট্রোলের দাম। করোনা আবহে নাজেহাল অবস্থা সাধারণ মানুষের। এমন পরিস্থিতিতে, এই অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে নেমেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল। তবে, বাস্তবে প্রতি লিটারে সেঞ্চুরি পেরোনো পেট্রোলের ক্ষেত্রে রাজ্যের পকেটেও আসছে কড়কড়ে ২৫ টাকা।

আরও পড়ুন, ডিভোর্সের জল্পনা উস্কে নয়া বার্তা ইমরানের ‘স্ত্রী’-র

সরকারি তথ্য বলছে, পেট্রোলের দাম প্রতি লিটার ১০০ টাকা পেরোলেও এর বেস প্রাইস মাত্র ৩৫ টাকা। বাকি সমস্ত টাকা কেন্দ্র এবং রাজ্যের করবাবদ দিতে হচ্ছে রাজ্যবাসীকে। শুল্কবাবদ কেন্দ্রীয় সরকার নিচ্ছে ৩৩ টাকা। রাজ্য সরকারও পিছিয়ে নেই, প্রতি লিটারে তাদেরও প্রাপ্তি ২৫ টাকা। প্রতি লিটারে ৪ টাকা দিতে হচ্ছে পরিবহণ খরচ৷

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পেট্রোপণ্যের দাম কমানোর দাবি করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছেন। কিন্তু সুকৌশলে এড়িয়ে গিয়েছেন রাজ্য সরকারের ২৫ টাকা কর প্রাপ্তির কথা। একইভাবে ডিজেল থেকেও প্রতি লিটার ১৭ টাকা পাচ্ছে রাজ্য। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে পেট্রোল ও ডিজেল থেকে ১ টাকা কর কমিয়েছিল রাজ্য সরকার। একইভাবে এখনও তৃণমূল সরকার চাইলেই সেই করের বোঝা কিছুটা কমাতে পারে মানুষের ওপর থেকে।

আরও পড়ুন, এবার তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাল বাংলাপক্ষ

বলে রাখা ভাল, বিভিন্ন মহল থেকে পেট্রোল ও ডিজেলকে জিএসটির আওতায় আনার দাবি উঠলেও মুখ্যমন্ত্রীর চিঠিতে তার কোনও উল্লেখ নেই৷ পেট্রোল এবং ডিজেল থেকে প্রাপ্ত করের টাকাতেই সংসার চলে সরকারের। তাই সোনার ডিম দেওয়া দুই হাঁস পেট্রোল ও ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্র ও রাজ্য দুইপক্ষই দায় ঠেলছে একে অপরের দিকে। রাজনীতি ছেড়ে মানুষের ভার লাঘব করতে কেউই কোনও সদর্থক পদক্ষেপ নিচ্ছে না।