টাটাদের সঙ্গে বিচ্ছেদের ঘোষণা মিস্ত্রি পরিবারের

0
1786

নয়াদিল্লি: বনিবনা হচ্ছিল না অনেকদিন ধরেই৷ তিক্ততা সত্ত্বেও টাটা সন্সের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রেখেছিল সাপুরজি-পালনজি পরিবার৷ কিন্তু আর নয়৷ এবার বিচ্ছেদের ঘোষণা করে দিল সাপুরজি গোষ্ঠী৷ ৭০ বছরের সম্পর্কে দাঁড়ি টেনে টাটাদের থেকে আলাদা হওয়ার কথা ঘোষণা করল সাপুরজি-পালনজি৷

মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টকে তাঁরা জানিয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে টাটার সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রাখা তাঁদের পক্ষে সম্ভব নয়৷ এটাই আলাদা হওয়ার সময়৷ সাপুরজি-পালনজি টাটা গোষ্ঠীর দ্বিতীয় বৃহত্তম অংশীদার৷ টাটা সন্সে তাদের ১৮.৩৭ শতাংশ শেয়ার রয়েছে৷ সেই অংশীদারি ছাড়তে ন্যায্য পাওয়া নিয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া জরুরি বলে বার্তা দিয়েছে মিস্ত্রিরা৷ সম্ভবত টাটারাও চাইছিল মিস্ত্রিরা আলাদা হয়ে যাক৷ তাই সাপুরজিদের পুরো অংশীদারি কেনার প্রস্তাবও দিয়ে দেয় টাটারা৷ যার মূল্য ১ লক্ষ কোটি টাকা৷

২০১৬ সালে আচমকা টাটা সন্সের চেয়ারম্যান পদ থেকে সাইরাস মিস্ত্রিকে সরানো হয়৷ তারপর থেকে দুই পরিবারের আইনি লড়াই শুরু৷ শেয়ার বিক্রি নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ঝামেলা চলছিল৷ সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দেয়, ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত টাটা সন্সের শেয়ার বন্ধক রাখতে বা হস্তান্তর করতে পারবে না মিস্ত্রিরা৷ তারপরই টাটারা শেয়ার কেনার প্রস্তাব দেয়৷ ওই সময় সুপ্রিম কোর্টকে সাপুরজি গ্রুপ জানিয়ে দেয়, টাটাদের সঙ্গে তাদের ৭০ বছরের পুরনো সম্পর্ক৷ আস্থা, বিশ্বাস ও বন্ধুত্বের উপরই দীর্ঘ সময় এই সম্পর্ক বজায় রাখা সম্ভব হয়েছিল৷ কিন্তু সবার স্বার্থ সুরক্ষার জন্য সম্পর্ক ছিন্ন হওয়া জরুরি৷