হাতের নাগালেই রয়েছে ‘মিনি দিঘা’, দুই দশকে রেকর্ড ভিড় পর্যটকদের

0
64
Digha

খাস ডেস্ক: কয়েকদিনের ছুটিতে কাছেপিঠে কোনও সমুদ্র সৈকতে ঘুরে আসতে চাইলে দিঘা-পুরী কিংবা মন্দারমণির কথা মাথায় আসে। তবে জানেন কি বাংলায় এমন একটি জায়গা আছে যেটিকে ‘মিনি দিঘা’ বলে। যদিও এখনও অনেকেই এই জায়গাটি সম্পর্কে অজানা। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে মালদহের এই পর্যটন কেন্দ্রে উপচে পড়ছে পর্যটকদের ভিড়।

পুরাতন মালদহ ব্লকের সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ভাটরা এলাকায় অবস্থিত কয়েক হাজার একর জমি বৃষ্টি এবং নদীর জল প্রবেশ করে বর্তমানে সমুদ্রের রূপ নিয়েছে। যার এপার-ওপার কিছুই দেখা যায় না। ঝোড়ো হাওয়ার ফলে ওই জলাশয়ে ঢেউ দেখা যায়। এর আসল নাম ভাটরা বিল। মালদহ শহর থেকে পাঁচ মিনিট দূরত্বে অবস্থিত এই ভ্রমণস্থল ‘মিনি দিঘা’ নামেই জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এর বিশেষত্ব হল, বৃষ্টির সময় ভাটরা বিল জলে ভরে যায়। আবার গ্রীষ্মকালে জল শুকিয়ে যায়। পর্যটকদের কথায়, এখানে তীব্র জলের স্রোত সমুদ্রের মতই অনুভূতি দেয়। প্রকৃতির বৈচিত্র্যময় দৃশ্য দেখে মুগ্ধ সকলে।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: পাকিস্তানের মাটিতে চিনা সেনা, চিন্তা বাড়ছে ভারতের

পর্যটকদের আনাগোনা বাড়তে থাকায় তাল মিলিয়ে বেড়েছে কর্মসংস্থান। এলাকায় গড়ে উঠেছে বিভিন্ন ফাস্টফুড সহ যাবতীয় জিনিসের দোকান। যার কারণেই সমুদ্র সৈকতের থেকে কোনও অংশে কম নয় এই ভাটরা বিল। পর্যটকদের দাবি, এই জায়গাটিকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে সংস্কারকার্য শুরু হোক। নিরাপত্তার বিষয়টিও জোরদার করা উচিত। অন্যদিকে, প্রশাসন সূত্রে খবর, গত কয়েক সপ্তাহে পর্যটকদের সংখ্যা ছিল প্রচুর। মালদহে প্রশাসনের অনুমোদন প্রাপ্ত হোটেলের সংখ্যা প্রায় ৫০। একটি হোটেলেরও কোনও রুম খালি ছিল না। অনেক পর্যটকরা রুম না পেয়ে ফিরে গিয়েছে এমনও হয়েছে। দু দশকে রেকর্ড সংখ্যক ভিড় হয়েছে মিনি দিঘায়।