স্বাদে গাজরের হালুয়া এগিয়ে থাকলেও গুণে টেক্কা দিচ্ছে জুস , জেনে নিন উপকারিতা

0
19

খাস ডেস্ক : নাকের ডগায় লোভের গাজর দিলে কয়েক মাইল হেঁটে যেমন রোগা হ‌ওয়া যায়। ঠিক তেমন‌ই গাজরের আরও গুনাগুন রয়েছে। শীতকালে স্যালাডের সঙ্গে প্রতিদিন যদি গাজর খেলে অনেক সমস্যা থেকে সহজেই মিলবে সমাধান –

১. ত্বক :
গাজরে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও পটাশিয়াম থাকায় প্রতিদিন গাজর খেলে ত্বক সুস্থ, সুন্দর ও উজ্জ্বল থাকে। ব্রন ও ত্বকের দাগ ছোপ দূর হয়।

২. দৃষ্টিশক্তি :
গাজরে ভিটামিন ‘এ’ রয়েছে। ভিটামিন এ দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি করতে ও চোখের অন্যান্য সমস্যায় বাঁধা সৃষ্টি করে।

৩. ব্লাড সুগার :
গাজরে সুগার ও ক্যালোরির পরিমাণ কম থাকে এবং প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম থাকায় কোলেস্টেরল ও ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকে। তাই সপ্তাহে অন্তত পক্ষে তিন দিন গাজর খেত পারেন।

৪. হজম :
গাজরের জুস হজমের সমস্যা থাকলে তা দ্রুত সমাধান করে। এমনকি গাজরে ফাইবার থাকার জন্য রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বৃদ্ধি পায়।

৫. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট :
গাজরের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় ক্যানসার প্রতিরোধ ও রক্ত শুদ্ধিকরণ করতে সাহায্য করে।

তাই গাজরের হালুয়া খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সপ্তাহে তিন – চার দিন গাজরের জুস খাওয়া শরীরের পক্ষে অত্যন্ত জরুরী।