দুস্থ শিশুদের শপিং মলে এনে পোশাক বেছে নেওয়ার সুযোগ করে দিল ‘সিস’

0
35

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিধাননগর: উৎসবের আলোয় ঝাঁ-চকচকে শপিংমলে (Shopping Mall) ঢুকে পছন্দমতো পোশাক বেছে কেনাকাটা? শহর-শহরতলির হোমে থাকা আবাসিক কিংবা নিম্নবিত্ত পরিবারগুলির শিশুদের কাছে এতদিন তা ছিল অলীক কল্পনা কিংবা দিবাস্বপ্ন৷ মনের কোনে লুকিয়ে থাকা অবহেলিত শিশুদের সেই ইচ্ছেগুলোকে এবছর বাস্তবে রূপ দিতে এগিয়ে এসেছে বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সিস ফাউন্ডেশন৷

দানের নামে জামাকাপড়ের প্যাকেট তুলে না দিয়ে, শপিং মলে ঢুকে পছন্দমতো পোশাক বেছে নেওয়ার বিরল সুযোগ করে দেওয়া হল কমবেশি ২০০ দুঃস্থ বাচ্চাকে৷ শনিবার সল্টলেক (Salt Lake) সিটি সেন্টার টু-র এসি মলে (City Center) দুঃস্থ বাচ্চারা নিজেদের পছন্দের পোশাক বেছে নিয়েছে৷ হাজার টাকার কার্ড নিয়ে শুধু পোশাকই নয়, পছন্দের ক্যাডবেরি কিংবা সাজার জিনিসও কেনাকাটা করেছে।

- Advertisement -

পছন্দের পোশাক বেছেছে বিশেষ চাহিদা সম্পন্নরা ৷ তালিকায় ছিল বন্ধ জুটমিল কর্মীর সন্তানও৷ সাধ থাকলেও, সাধ্যে যাঁদের কুলোয় না, সেই পরিবারগুলির শিশুদেরও সামিল করেছিল উদ্যোক্তা সিস ফাউন্ডেশন৷ শিশুদের কোন ড্রেসটা পুজোয় পরলে ফাটাফাটি লাগবে তা বেছে নিতে সাহায্য করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের কালারফুল ও এভারগ্রিন বিধায়ক মদন মিত্র (MLA Madan Mitra৷)

ঝলমলে টি শার্টের সঙ্গে বারমুডা, না কি জাম্প শ্যুট …৷ আবার লেহেঙ্গা ডিজাইন না পার্টি ড্রেস… কোনটা পরলে পুজোর ভিড়েও আলাদা করে তারা নজর কাড়তে পারে তা নিয়ে চলেছে জোর হুটোপুটি ৷ আর ধন্দে পড়লেই মুশকিল আসান করে দিচ্ছিলেন চিরসবুজ তৃণমূল নেতা মদন মিত্র।

ফ্যাসন স্টেটমেন্টে জেনারেশন ওয়াইকে ঈর্ষায় ফেলে দেওয়া ষাটোর্ধ্ব কামারহাটির বিধায়ককে(MLA, Kamarhati) এই কারণেই সামিল করেছিল স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সিস ফাউন্ডেশন৷ তাই দুঃস্থ শিশুদের পাশাপাশি কেনাকাটা পর্ব শেষে হতেই চওড়া হাসি দু-পক্ষের৷