মহিলার রক্তাক্ত অর্ধনগ্ন দেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ

0
74

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাজারহাট: উদ্ধার হল এক মহিলার রক্তাক্ত অর্ধনগ্ন দেহ৷ শরীরে একাধিক জায়গায় আঘাতের চিহ্ন ও সিগারেটের ছেঁকার দাগ পরিষ্কার৷ ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল রাজারহাট গাঁড়াগড়ি এলাকায়৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রাজারহাট থানার পুলিশ৷ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে৷

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম আলিয়া বিবি (৫০)৷ বুধবার সকালে মাঠে কাজের জন্য বাড়ি থেকে বের হয়৷ রোজের মতো এদিনও দুপুরে বাড়ি ফিরে আসার কথা ছিল তাঁর৷ কিন্তু এদিন সন্ধ্যা হয়ে গেলেও তিনি বাড়ি ফিরে আসেননি৷ এরপরই পরিবারের সদস্যরা তাঁকে খুঁজতে বের হয়৷

অভিযোগ, গাঁড়াগড়ি এলাকায় যে মাঠে তিনি কাজ করতেন সেখানে যান পরিবারের সদস্যরা৷ গিয়ে দেখেন ওই মাঠে পড়ে আছে দুপুরের খাবার৷ পাশে রক্ত৷ এরপর খোঁজাখুঁজি করলে দেখা যায় মাঠের মাঝে একটি ঝোপের মধ্যে রক্তাক্ত এবং পা বাঁধা অবস্থায় মৃতদেহ পরে রয়েছে। শরীরে একাধিক জায়গায় সিগারেটের ছেঁকা এবং মাথায় ক্ষত চিহ্ন।

এরপর রাজারহাট থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। আলিয়া বিবিকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে কিনা বা অন্য কোনো শত্রুতা ছিল কিনা সমস্ত কিছু তদন্ত করে দেখছে রাজারহাট থানার পুলিশ। পরিবারের পক্ষ থেকে রাজারহাট থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷

তবে নির্মমভাবে খুনের ঘটনায় এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া৷ সেই সঙ্গে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে মাঠে অনেকেই কাজ করে তাঁদের সামনে থেকে কে বা কারা আলিয়া বিবিকে নিয়ে গেল? ধর্ষণই বা কেন করা হয়েছে? স্থানীয় বাসিন্দারা সহ পরিবারের সদস্যরা অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তির দাবি করেছে৷