ভোট পরবর্তী হিংসায় মৃত্যু হয়েছে মালিকের, অভিজিৎয়ের শ্রাদ্ধে ঠায় বসে রইল সারমেয়রা

0
33

 

খাস খবর ডেস্ক: প্রিয় বন্ধুর দেখা মেলেনি বহুদিন হল। শুনতে পায়, মালিক নাকি মারা গিয়েছেন, কারা সব পিটিয়ে মেরেছে তাঁকে। তবু বিজেপি কর্মী অভিজিৎকে ভোলেনি সারমেয়রা। আজ তাঁর শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে মালা দেওয়া ছবির সামনে বসে রইল রাস্তার নেড়িরাও।

- Advertisement -

শোনা যায়, রাস্তার কুকুরদের সন্তানের মতো ভালোবাসতেন অভিজিৎ। তাদের নাওয়াতেন, খাওয়াতেন, খেলতেন। রবিবার তাঁর শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে তাই ঠায় বসে রইল ওই সারমেয়রা। একদৃষ্টে চেয়ে থাকল মালা দেওয়া অভিজিৎয়ের ছবির দিকে।

গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ, নির্বাচনে ফল প্রকাশের পর তাঁকে পিটিয়ে মেরেছে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা। ছাড় পায়নি একটি পোষ্যও, সেদিন রাস্তার এক সারমেয়কেও পিটিয়ে খুন করেছিল শাসকদলের লোকরা। সিবিআই তদন্তও করছে গোটা বিষয়ে। তবে রাজনীতি, হিংসা, খুনোখুনির কিছুই বোঝে না ওই না-মানুষরা। তারা স্রেফ জানে, তাদের বন্ধুকে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না বহুদিন হল। তাদের চোখ খুঁজছে অভিজিৎকে। ফের আগের মতো হুটোপাটি করতে চাইছে, আদর খেতে চাইছে তারা।

এদিন অভিজিৎয়ের শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দিলীপ ঘোষ সহ একাধিক বিজেপি নেতা৷ অভিজিৎয়ের ছবিতে মাল্যদান করেন দিলীপ। তবে ঠায় বসেছিল অভিজিৎয়ের সারমেয়রা। বিজেপির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যুগে যুগে কুকুররা প্রভুভক্তির প্রমাণ রেখেছে। অভিজিৎ পশুপ্রেমী ছিলেন। একাধিক পথকুকুরদের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। তাঁর মৃত্যুর পরও পোষ্যরা ভোলেনি তাঁকে। শ্রাদ্ধে অভিজিৎকে সবচেয়ে বেশি স্মরণ হয়ত তারাই করছিল।