চাঁদের ঠিক নিচেই শুক্র গ্রহ, শুক্রবার বিরল মহাজাগতিক দৃশ্য দেখার ধুম শহরে

0
700

কলকাতা: সৌরজগতের সবথেকে উষ্ণ গ্রহটি হল, শুক্র। সৌরজগতের সবচেয়ে উজ্জ্বল গ্রহ-ও এটি। যা শুকতারা বা সন্ধ্যাতারা নামেও পরিচিত। সেই শুকতারাকে এবারে চাঁদের কাছাকাছি আসতে দেখা গেল। খোদ শুক্রবারেই শুক্রের এহেন মহাজাগতিক কর্মকাণ্ডের সাক্ষী থাকল কলকাতা।

আরও পড়ুন: বিশ্বের সবথেকে খতরনাক অস্ত্র ভ্যাকুয়াম বোমা, নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে একটা গোটা মানুষ

- Advertisement -

কয়েকদিন আগেই কাছাকাছি এসেছিল শুক্র এবং বৃহস্পতি গ্রহ। আর এদিন সূর্য ডুবতেই অর্ধ চাঁদের ঠিক নিচেই দেখা গেল সন্ধ্যাতারাকে। উজ্জ্বল একটি বিন্দু। ক্রমে বিন্দুটিকে কিছু সময়ের জন্য ঢেকে দেয় চাঁদ। কলকাতার অনেক জায়গা থেকেই দেখা গেল এই দৃশ্য। দৃশ্যটি দেখার ধুম পড়ে যায় শহরবাসীদের মধ্যে। অনেকেই নিজের মোবাইল ফোনে এই মহাজাগতিক দৃশ্য বন্দি করে রাখেন।

মহাকাশ বিশেষজ্ঞ দেবীপ্রসাদ দুয়ারির কথায়, “শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে চাঁদের নিচে এক উজ্জ্বল তারাকে দেখা যাচ্ছে। কিন্তু এটি তারা নয়। এটি শুক্র গ্রহ। সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে গিয়ে অনেক সময় গ্রহগুলি পরস্পর কিংবা চাঁদের সঙ্গে একই রেখায় চলে আসে।” তিনি শুক্রকে চাঁদের ঢেকে দেওয়া প্রসঙ্গে জানান, “মনে হচ্ছিল যেন শুক্রের গ্রহণ হয়েছে।”

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

শুক্র গ্রহকে নিয়ে এমনিতেই বিশেষজ্ঞদের কৌতূহল তুঙ্গে। সূর্যের সবচেয়ে কাছের গ্রহ বুধ হলেও শুক্র সৌরজগতের উষ্ণতম গ্রহ। যা আকারে পৃথিবীর কাছাকাছি। ফলে একে পৃথিবীর জমজ গ্রহ-ও বলা হয়ে থাকে। শুধু তাই নয়। একদল বিজ্ঞানীর দাবি, শুক্র উষ্ণতম গ্রহ হওয়া সত্ত্বেও সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব থাকতে পারে। কারণ গ্রহটির বায়ুমণ্ডলে যে মেঘ রয়েছে, অ্যামোনিয়াম সল্ট রয়েছে তাতে। যা জীবন সৃষ্টির অন্যতম প্রধান উপাদান।