১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ পার্থ ও অর্পিতার

0
36

কলকাতা: বুধবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে ভার্চুয়াল শুনানি হয় নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতার(Partha-Arpita)। তবে এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী জামিনের আবেদন করলেন না। বারবার তদন্তের অগ্রগতি নিয়ে এদিন প্রশ্ন তুললেন পার্থ এবং অর্পিতার আইনজীবী। প্রশ্ন তোলা হয়েছে, কেন আটকে রাখা হয়েছে পার্থ এবং অর্পিতাকে! এবার সেই শুনানিতেই রায় দিল ব্যাঙ্কশাল আদালত। পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের আগামী ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিলেন ব্যাঙ্কশাল আদালতের বিচারক।

আরও পড়ুন তৃণমূল নেতার ওপর হামলা-বোমাবাজির অভিযোগ, গ্রেফতার বিজেপির কার্যকর্তা সহ ৫

- Advertisement -

বারবার পার্থ ও অর্পিতার(Partha-Arpita) জামিন প্রসঙ্গে ইডির আইনজীবীর পক্ষ থেকে বিরুদ্ধচারণ করা হয়েছে। এদিন এর মধ্যেই পার্থ আইনজীবী জামিনের দাবি না রাখলেও ইডির তরফ থেকে বলা হয়েছে, ঠিক যেমন ডাকাতির ক্ষেত্রে টাকা নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় লুকিয়ে পড়ে সেরকমই এক্ষেত্রেও তাই হয়েছে, তাই জামিন দেওয়া হলে তাদের তদন্তে অসুবিধা হবে। পাশাপাশি ইডি দাবি করেছে, বেসরকারি আইন কলেজ এবং ফার্মাসি কলেজগুলিকে NOC পাইয়ে দেওয়ার নাম করে প্রচুর টাকা নিয়ে দুর্নীতি করেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। জামিন তাই যাতে না দেওয়া হয়ে সেই মর্মে আর্জি রাখেন ইডির আইনজীবী।

উল্লেখ্য, সোমবার পার্থ চট্টোপাধ্যায় সহ নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্তদের নিয়ে যাওয়া হয় আদালতে। পার্থ চট্টোপাধ্যায়-কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় ছাড়াও ছিলেন এসএসসি-র প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্য, প্রসন্ন রায়, অশোক সাহা, এস পি সিনহা। আলিপুরের বিশেষ CBI আদালতে ফের পার্থর জামিনের আর্জি জানান তাঁর আইনজীবী। কিন্তু তাতেও মিলল না জামিন। ফের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল আলিপুর আদালত। আগামী ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ পার্থ সহ নিয়োগ দুর্নীতি মামলার বাকি অভিযুক্তদের। এবার বুধবার ভার্চুয়াল শুনানি হল ব্যাঙ্কশাল কোর্টে।