বাম আমলের চিরকুটে নিয়োগের অভিযোগ, আজ সিদ্ধান্ত নিতে পারে মমতার মন্ত্রিসভা

0
56

কলকাতা: নিয়োগ দুর্নীতি তোলপাড় রাজ্য৷ জেলে রয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী সহ শাসকদলের একাংশ নেতা, বিধায়ক৷ এমন প্রেক্ষাপটে সম্প্রতি প্রায় প্রতিদিনই পূর্বসুরী সিপিএমের আমলের দুর্নীতি নিয়ে সরব হচ্ছেন শাসকদলের নেতারা৷ পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি উঠছে৷ এমন আবহে আজ দুপুরে নবান্নে বসতে চলেছে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক৷ বৈঠকে হাজির থাকার কথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও৷

সূত্রের খবর, পূর্বসুরী বাম আমলের চিরকুট-নিয়োগের প্রসঙ্গটি উঠতে পারে এদিনের মন্ত্রিসভার বৈঠকে৷ স্বভাবতই, এই বিষয়ে মন্ত্রিসভা কোনও সিদ্ধান্ত নেয় কি না, সেদিকে নজর রাখছে সব মহল৷ অন্যদিকে মে মাসের শুরুতেই হতে পারে পঞ্চায়েত নির্বাচন৷ নির্বাচনের আগে গ্রামাঞ্চলের মানুষের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী নতুন করে কোনও বার্তা স্পষ্ট করেন কি না, সেদিকেও নজর রাখছেন রাজনীতির কারবারীরা৷

- Advertisement -

বস্তুত, রাজ্যের শিক্ষাঙ্গনে দুর্নীতির শুরুয়াৎ হয়েছে বাম আমলে৷ এমনটাই দাবি রাজ্যের বর্তমান শাসক তৃণমূলের৷ প্রায় প্রতিদিনই নিয়ম করে তৃণমূলের প্রথমসারির নেতারা, বাম আমলে সিপিএম নেতার পরিবারের সদস্যকে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ সামনে আনছেন৷ ওই আমলে চিরকুটে চাকরি দেওয়ার জোরালো অভিযোগ সামনে আসছে৷ শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তীর স্ত্রীর চাকরি পাওয়ার প্রসঙ্গটি টেনে ইতিমধ্যেই বিতর্ক উস্কে জানিয়েছেন, তদন্ত হবে কি না, সেটা ঠিক করবেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী৷

ব্রাত্যর ওই মন্তব্যকে চ্যালেঞ্জ করেছেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। তাঁর চ্যালেঞ্জ, ‘‘অভিযোগ থাকলে আদালতে মামলা ঠুকুন।’’ এই পরিস্থিতিতে পঞ্চায়েত ভোটের মুখে নিয়োগ দুর্নীতির বির্তকের রেশকে কেন্দ্র করে মন্ত্রিসভা নতুন কোনও পদক্ষেপ নেয় কি না, তা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে৷ স্বভাবতই, আজ মন্ত্রিসভার বৈঠকের দিকে নজর রাখছে সব পক্ষই৷

আরও পড়ুন: শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ হলে তবেই বিজেপির টিকিট, নন্দীগ্রামের তালিকা নিয়ে এবার বির্তক দলেই