রাজ্যে রয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-সেনাপ্রধান, অগ্নিগর্ভ মণিপুরে যাওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করে কেন্দ্রকে চিঠি মমতার

0
74
Mamata Banerjee

কলকাতা: অশান্তির আঁচ কমার বদলে ক্রমেই উত্তাপ বাড়ছে মণিপুরের। সেই সঙ্গেই প্রাণহানির ঘটনা বেড়েই বলছে। যার রেশ পড়েছে গোটা দেশজুড়ে। অশান্ত এবং অগ্নিগর্ভ  মণিপুরে যেতে চান বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উত্তর-পূর্বের রাজ্যে যাওয়ার কথা জানিয়ে কেন্দ্রকে চিঠি লিখেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

কুকি ও মেতেই সম্প্রদায়ের মধ্যে সংঘর্ষে বিগত কয়েকমাস ধরেই অগ্নিগর্ভ হয়ে রয়েছে  মণিপুর। পরিস্থিতি সামাল দিতে সেখানে গিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, সেনাপ্রধান মনোজ পাণ্ডে। একতা, শান্তি ও সম্প্রীতি রাখার আবেদন মমতা আগেই করেছেন মমতা। এবার অশান্ত রাজ্য পরিদর্শনে যাওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন তিনি। তাঁর এই আবেদন কেন্দ্র মঞ্জুর করে কি সেই দিকে নজর রয়েছে গোটা রাজনৈতিক মহলের।  মণিপুরের ঘটনার জন্য বাংলার মুখ্যমন্ত্রী  একাধিকবার বিজেপিকে দায়ী করেছেন। তবে শুধু বাংলার মুখ্যমন্ত্রী নয় বিজেপি বিরোধী দলগুলি সকলের গলাতেই একই সুর শোনা গিয়েছে। কংগ্রেস এই বিষয়ে রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছে। এই আবহে মমতার চিঠি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, দীর্ঘ সময় ধরে দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে চলা সংঘর্ষে ৮০ জনের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। শুধু রাজনীতিবিদরা নন,  অলিম্পিয়ান সহ মণিপুরের ১১ জন ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে পরিস্থিতি শান্ত করার আর্জি জানিয়ে চিঠি লিখেছেন। রাজ্যে চলমান সঙ্কটের সমাধানের জন্য তাঁর কাছে অনুরোধ করেছেন। অলিম্পিক পদক বিজয়ী মীরাবাই চানু সেই বিশেষ ব্যাক্তিদের মধ্যে রয়েছেন যারা চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন এবং সতর্ক করেছেন যে তারা তাদের পুরষ্কার এবং পদক ফিরিয়ে দেবেন যদি না তাড়াতাড়ি “শান্তি ও স্বাভাবিকতা” পুনরুদ্ধার করা না হয়। প্রসঙ্গত, অমিত শাহ  ৪ দিনের জন্য মণিপুরে থাকবেন। কথা বলবেন দুই সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গেই। তাঁর এই আলোচনা কতটা ফল দেবে সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা।